শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত ফরিদপুরের পেঁয়াজ চাষিরা

ফরিদপুর সংবাদদাতা : ফরিদপুরে গত দুই দিনের শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় নষ্ট হয়েছে অধিকাংশ ফসল। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পেঁয়াজ, ভুট্টা ও কলা ক্ষেত। এতে লোকসানের আশঙ্কা করছেন স্থানীয় কৃষকরা।

কৃষকরা জানায়, শনিবার রাতভর ভারী বৃষ্টির সঙ্গে শিলা এবং ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায় জেলার নয়টি উপজেলার উপর দিয়ে। এতে নষ্ট হয়েছে ক্ষেতের অধিকাংশ ফসল। ফরিদপুর সদর উপজেলার অম্বিকারপুর ইউনিয়নের পেয়াজ বীজ চাষি হাফিজার মাতুব্বর বলেন, সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে আমারা পেঁয়াজ বীজ ঘরে তুলতে পারতাম, কিন্তু হঠাৎ ঝড়ো হাওয়া ও শিলা বৃষ্টিতে পেঁয়াজ বীজের কদম কাদা মাটিতে পড়ে গেছে। একই কথা জানান, এলাকার আরেক চাষি মো. বক্কর হোসেন। তিনি জানান, পেঁয়াজ বীজ উৎপাদন অন্য যেকোনো ফসলের তুলনা অধিক ব্যয়বহুল। এবার চলতি মৌসুমে ফসল ঘরে তোলার আগেই কয়েক দফা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় পেঁয়াজের কদম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, এতে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে পেঁয়াজ বীজ চাষিরা।
ফরিদপুর জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, জেলার আড়াই হাজার হেক্টরের অধিক জমিতে পেঁয়াজ বীজের আবাদ করেছিলেন চাষিরা। ঝড়ো হাওয়া ও শিলা বৃষ্টির ফলে কৃষকের সেই ক্ষেতে পেঁয়াজ বীজের কদম মাটিতে পড়ে গেছ। এতে অধিকাংশ চাষি ক্ষতির মুখে পড়ার সম্ভাবনায় রয়েছে। তবে ফরিদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কান্তিক চন্দ্র চক্রবর্তী জানান, বৃষ্টিতে একদিকে যেমন কৃষকের ক্ষতি হয়েছে, তেমনি আবার লাভও হয়েছে। পেঁয়াজ বীজ চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বোরো ধান এবং পাট চাষিদের জন্য এই বৃষ্টি আর্শিবাদ হয়ে এসেছে। আম, লিচু চাষিরা লাভবান হবেন এই বৃষ্টিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!