যুক্তরাষ্ট্রে নাইটক্লাবে বচসা থেকে হামলায় আহত ২৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য আরাকানসাসে শনিবার ভোরে নাইটক্লাবে বন্দুক হামলায় ২৮ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা গুরুতর বলে কর্মকর্তারা জানান। শনিবার ভোরে আরকানসাসের লিটল রক শহরের আল্ট্রা লাউঞ্জ নাইটক্লাবে এ ঘটনা ঘটে।
নাইটক্লাব থেকে আতঙ্কিত মানুষ হুড়োহুড়ি করে বেরুতে গিয়ে পদদলিত হয়েছেন। এটা কোনও জঙ্গি কার্যকলাপ নয়। কোনও পেশাদার বন্দুকবাজের হামলার ঘটনাও নয়। কনসার্টে বচসার জেরেই ঘটনাটি ঘটেছে বলে আরকানসাস পুলিশের টুইট বার্তায় বলা হয়েছে।
লিটল রক শহরের মেয়র বলেন, শহরের কেন্দ্রস্থলে পাওয়ার আল্ট্রা লাউঞ্জ নাইটক্লাবে স্থানীয় সময় রাত আড়াইটার দিকে হামলাটি চালানো হয়। এই ঘটনায় আহতদের সকলেই বেঁচে রয়েছেন বলে আশা করা হচ্ছে। ভোরের দিকে সেই কনসার্ট যখন শেষ হয়ে আসছে, তখনই লাউঞ্জের এক কোণে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। উত্তেজিত হয়ে একজন গুলি চালাতে শুরু করেন। নাইট ক্লাবের লাউঞ্জের মধ্যে থাকা মানুষ প্রাণ বাঁচাতে হুড়াহুড়ি করে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেন।
মেয়র মার্ক স্টোডোলা বলেন, ‘আমি আমাদের জনগণকে জানাতে চাই যে এটা একটি মর্মান্তিক ঘটনা তবে সন্ত্রাসী হামলা নয়। পরিকল্পিতভাবে হামলাটি চালানো হয়েছে বলে মনে হচ্ছে না।’
কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে হামলাকারী সম্পর্কে কোন তথ্য প্রকাশ করেনি।
পুলিশ প্রধান কেন্টন বাকনার বলেন, এই ঘটনায় নিহতদের বয়স ১৬ বছর থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা গুরুতর। এই মুহূর্তে আমাদের এটা বিশ্বাস করার কোন কারণ নেই যে জনসাধারণের মধ্যে কেউই কোন ধরনের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।
এই সহিংসতার পেছনে অপরাধ চক্রগুলোর মধ্যকার দ্বন্দ্বের কোন কারণ রয়েছে কিনা কর্তৃপক্ষ তা খতিয়ে দেখছে।
মেয়র জানান, যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই, ব্যুরো অব অ্যালকোহল, কোবাকো, ফায়ারআর্মস অ্যান্ড এক্সপ্লোসিভস (এটিএফ) ও ইউএস মার্শাল হামলার বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!