ম্যারাডোনাকে আমন্ত্রণ না করায় তোপের মুখে মেসি

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বারবার মেসির পাশে দাঁড়িয়েছেন। মেসিও অনেকবার বলেছেন, তার প্রিয় ফুটবলার ম্যারাডোনা। দুজনের মধ্যে উঞ্চ সম্পর্কের কথাই তো জানতো ক্রিকেট বিশ্ব। এতশত লোককে দাওয়াত করলেন, অথচ বাদ দিলেন তারই ফুটবল হিরো এবং স্বদেশি দিয়েগো ম্যারাডোনাকে! হ্যাঁ, ম্যারাডোনাকেই ছাড়াই শতাব্দির সেরা বিয়ের অনষ্ঠানটা শেষ করলেন মেসি, তাও আবার আর্জেন্টিনাতে।
শুধু ম্যারাডোনা নয়, আমন্ত্রিতদের তালিকায় ছিলেন না মেসির অন্যতম প্রিয় কোচ পেপ গার্দিওলাও। এ নিয়েও বিস্ময়ের সৃ্ষ্টি হয়েছে ফুটবল বিশ্বে।
কিংবদন্তি মারাদোনাকে নিমন্ত্রণ না করায় ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলের সমালোচনার শিকার হতে হচ্ছে মেসিকে। ফেসবুক থেকে টুইটার বিভিন্ন জায়গাতে এর প্রতিবাদ করেছেন ফুটবল রাজপুত্রের অনুগামীরা।
শানবার মহা ধুমধামে আর্জেন্টিনার অন্যতম বিলাস বহুল হোটেল রোজারিওর সিটি সেন্টারে ছোটবেলার প্রেমিকা অ্যান্তোনিলা রোকাজ্জুকে বিয়ে করে আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। পাঁচ বার ব্যালন ডি’অর জয়ী লিওয়ের বিয়েকে কেন্দ্র করে এ দিনের হোটেল রোজারিও ছিল নক্ষত্র পরিবেষ্টিত।
বিশ্ব ফুটবলের তাবড়া তাবড় নক্ষত্ররা ছাড়াও এই বিয়ের সাক্ষী থাকতে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন জগতের তারকারা। মোট ২৬০ জন অতিথি নিমন্ত্রিত ছিলেন এই বিয়ের আসরে।
অতিথিদের তালিকায় ছিলেন বার্সেলোনায় মেসির সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ, নেইমাররা এবং স্বস্ত্রীক জেরাড পিকে। অনুষ্ঠানে কোলম্বিয়ান পপ স্টার শাকিরার উপস্থিতি রাতের রোজারিওকে আরও আলোকিত করে তোলে। পিকে এবং তাঁর স্ত্রী শাকিরা ছাড়াও, মেসি-অ্যান্তোনিলা বিয়ের অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক অংশ নিয়েছিলেন জাভি হার্নান্ডেজ, সেস ফ্রাব্রিগাস, কার্লোস পুয়োল এবং লাভেজি।
এই অনুষ্ঠান গোটা বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে নিমন্ত্রিত ছিলেন ১৫০ সাংবাদিকও। এ ছাড়া রোসারিওর বাইরে মেসিকে নতুন জীবনের শুভেচ্ছা জানাতে উপস্থিত হয়েছিলেন হাজার হাজার মেসি ভক্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!