ভয় উপেক্ষা করে শোলাকিয়ার জামাতে লাখো মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক : এক বছর আগে জঙ্গি হামলা নিয়ে উদ্বেগ থাকলেও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে নির্বিঘ্নে। ভয় উপেক্ষা করে অংশ নিয়েছে লাখো মানুষ। তারা এসেছেন দূর দূরান্ত থেকে। দল বেঁধে ময়দানে হাজির হয়ে তারা সকল ধরনের উগ্রবাদের বিরুদ্ধে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরেছেন। ইসলামে শান্তি ও সাম্যের দর্শন যে এখনো অটুট সেটি প্রমাণ করেছে জনগণ।
সোমবার কিশোরগঞ্জ শহরের পূর্ব প্রান্তে বিশাল ঈদগাহ ময়দানে সকাল ১০টায় শুরু হয় জামাত। ইমামতি করেন বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ।
ভোর থেকেই কিশোরগঞ্জ শহর ও আশেপাশের গ্রাম ও উপজেলা থেকে হাজারো মানুষের স্রোত ছিল শোলাকিয়ামুখি। দুটি বিশেষ ট্রেনে ময়মনসিংহ ও ভৈরব থেকে আসে হাজারো জনগণ। দূরের জেলা থেকে মুসল্লিরা নামাজে অংশ নিতে আসেন কয়েক দিন আগেই।
এক বছর আগের জঙ্গি হামলার কারণে এবার ঈদ জামাতকে ঘিরে নিরাপত্তায় ছিল কড়াকড়ি। এবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে জেলার সব পুলিশ সদস্যের।
গত বছরের ৭ জুলাই শোলাকিয়ার জামাতের প্রবেশপথ আজিমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশের এলাকায় পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে হঠাৎ হামলা হয়। দুই জঙ্গিরা গ্রেনেড ছুঁড়ে ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আনসারুল ও জহিরুল নামে দুই পুলিশ সদস্যকে হত্যা করে। এ সময় পুলিশের পাল্টা গুলিতে প্রাণ হারান হামলাকারী আবির রহমান।
গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পিস্তলসহ পুলিশের হাতে আটক হন আরেক জঙ্গি শফিউল ইসলাম। চিকিৎসা শেষে তাকে কিশোরগঞ্জে আনার পথে ময়মনসিংহের নান্দাইলে জঙ্গিরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে গোলাগুলিতে শফিউল ইসলাম ও তার সহযোগীর মৃত্যুর কথা জানিয়েছে পুলিশ।
জঙ্গি-পুলিশ গোলাগুলির সময় নিজ ঘরে গুলিবিদ্ধ হযে মারা যান গৃহবধু ঝরনা রাণী ভৌমিক। তার পরিবার ও এলাকাবাসীর মধ্যে এখনও রয়ে গেছে শোকের রেশ।
বিস্তারিত আসছে…

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!