বাগেরহাট-১ আসনেও চলছে জাতীয় সংসদ নির্বাচনী হাওয়া

খুলনা সংবাদদাতা : সারা দেশের মত বাগেরহাট-১ আসনেও চলছে আগাম নির্বাচনী হাওয়া। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের একাধিক তরুন প্রবীন নেতারাও মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আগে ভাগেই মাঠে নেমে পড়েছেন। কেউ কেউ দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য কেন্দ্রিয় কমিটি বা তাদের হাইকমান্ডেও যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একক প্রাথী থাকলেও বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের একাধিক সম্বাব্য প্রাথী দলের মনোনয়ন পেতে আগে ভাগেই তাদের দলের পক্ষে গণসংযোগ মতবিনিময় ও শুভেচ্ছা বার্তা প্যানা এবং ফেষ্টুনী টাংগিয়ে জনগনের সামনে নিজেকে পরিচিতি করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের আগমনের বার্তায় মনে হচ্ছে, আগে ভাগেই মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মাঠে নেমে পড়েছেন।
জানা গেছে, ফকিরহাট মোল্লাহাট ও চিতলমারী উপজেলা নিয়ে বাগেরহাট-১ আসন গঠিত। এই আসনে স্বাধীনতার পর হতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ বারবার জয়ী হওয়ায় আসনটি আওয়ামী লীগের ঘাটি বা দুর্গ হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে। আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-কে কেন্দ্র করে হাট-বাজার সহ সমগ্র জনপদ আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হয়েছে। চায়ের টেবিেিলর আলোচনা সমালোচনা থেকে যাদের নাম বেশি উঠে এসেছে তাঁরা হচ্ছেন, আওয়ামী লীগের (নৌকা প্রতিকের) সম্বাব্য প্রার্থী হতে পারেন প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা অথবা তার চাচাত ভাই জননেতা শেখ হেলাল উদ্দীন (এমপি)। বিএনপির (ধানের শীষ প্রতিকের) সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এ্যাডঃ ওয়াহিদুজ্জামান দিপু, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তরুন সমাজসেবক মেরিন ইঞ্জিঃ এ্যাডঃ মাসুদ রানা, ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ন-সম্পাদক মোঃ রবিউল আলম রবি ও মঞ্জুর মোর্শেদ স্বপন। তবে তৃনমূলের নেতাকর্মিদের দাবী মাঠ পর্যায়ে সকল দলীয় কর্মকান্ডে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তরুন সমাজসেবক মেরিন ইঞ্জিঃ এ্যাডঃ মাসুদ রানার উপস্থিতি ছিল অন্যান্য নেতাদের তুলনায় অনেক বেশি। সে কারনে তিনি বিএনপির মনোনয়ন পেতে পারেন বলেও অনেকের ধারনা। এছাড়া জাতীয় পার্টি (লাঙ্গল প্রতিকের প্রার্থী) হতে মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী জাতীয় ওলামা পার্টির কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারন সম্পাদক মাওঃ এস এম আল জুবায়েদ, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের (হাত পাখা প্রতিকের) সম্ভাব্য প্রার্থী ও মনোনয়ন প্রত্যাশী ফকিরহাট উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মাষ্টার ইদ্রিস আলী মির্জা ও মুজাহিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ লিয়াকাত আলী সহ বিভিন্ন ব্যাক্তি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য হাইকমান্ডে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। সোনার হরিণ নামক দলীয় মনোনয়ন-কে পাবেন তা নিয়েও অনেকের রাতের ঘুম হারাম হয়ে পড়েছে। একমাত্র আওয়ামী লীগের কোন দলীয় কোন্দল বা মতো বিভেদ নাই। আর অন্য সকল দলে কিছুটা মতবিভেদ দেখা দিলেও তা নিয়ে রীতিমত অনেক সম্ভাব্য প্রার্থী দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তবে দলীয় মনোনয়ন যেই পাক না কেন তার পক্ষে সকলে মিলেমিলে কাজ করবেন বলেও অনেক সম্ভাব্য প্রার্থী দাবী করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!