1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
সোমবার, ১০ মে ২০২১, ০৪:২৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :

পুলিশের ঈদ?

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৮
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে

নানা সমালোচনার মধ্যেও পুলিশের সেবাকে অস্বীকার করার উপায় নেই। বাহিনীটির ২৪ ঘণ্টার সতর্ক চোখ আর চেষ্টাতেই স্বাভাবিক আর নিরাপদ জীবন সম্ভব। আর এ কারণে সাধারণের ঈদ পার্বণ আসে না পুলিশের জীবনে।  এই যেন  পুলিশ  হিসেবে কাজ করেন  জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সতর্ক দৃষ্টি রাখছিলেন যেন কোনো হাঙ্গামা না হয়, যেন কারও নিরাপত্তায় হুমকি না আসে।

সকাল সাত থেকে তার ডিউটি। ঈদের দিন বলে আয়েশ করে ঘুমানোও যায়নি। ভোরে ঘুম থেকে উঠে গোসল করে নিত্য দিনের পোশাক পরেই তৈরি হতে হয়েছে ঈদগাহে আসার জন্য।

তবে নামাজ পড়তে নয়। সবাই যখন ঈদের নামাজ পড়ছেন তখন অস্ত্র হাতে পাহারায় ছিলেন । আর সবার মতোই তারও স্বজনের জন্য মায়া আছে, আছে কাছে যাওয়ার আকুতি, আছে একসঙ্গে বসে ভালোমন্দ খাওয়ার বাসনা।  কিন্তু কি আর করা, পেশাটাই এমন যে এখানে আবেগের স্থান নেই। ভাবছেন এক ঈদে বাড়ি গেছেন, আরেক ঈদে সুযোগ পাননি ? ঈদুল ফিতরের দিনটিও একইভাবে কেটেছে ।  পুলিশের বিশেষ শাখায় কাজ করেন । ঈদের দিন দায়িত্ব পড়েছে  সাদা পোশাকে গোয়েন্দা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ঈদের ছুটি পাননি  স্ত্রী, সন্তান আছে গ্রামের বাড়িতে। অভিমানী সন্তানকে কীভাবে মানাবেন, তা জানেন না। তাই ঈদের দিন তাদের ফোন করতেই ভয় লাগে।

সারা দেশে এ রকম গল্প প্রায় ৭১ হাজার পুলিশ সদস্যদেও যারা অন্যের ঈদ নির্বিঘ্ন করতে কাজ করে যাচ্ছেন। কেউ ঈদগাহে, কেউ সড়কে, কেউ পশুর হাটে, কেউ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায়, কেউ অপরাধী ধরতে কেউ বা অপরাধ ঠেকাতে দায়িত্ব পালন করছেন।

পুলিশের চাকরি করি। আমাদের আবার ঈদ আছে নাকি? শহরের মানুষের নিরাপত্তা দেওয়াটাই আমাদের কাছে মুখ্য বিষয়। আর নিজের ও পরিবারের আনন্দটা গৌণ বিষয়। তখনই ভালো লাগে যখন আমাদের কাজে জনগণ সন্তুষ্ট হয়। তখনই নিজেকে স্বার্থক মনে হয়।’

ঈদে ঢাকা বা দেশের কোথাও বড় ধরনের গোলযোগ হয়নি। সব সব মিলিয়ে নিরাপত্তা পরিস্থিতিতে সন্তুষ্ট পুলিশও।

বাংলাদেশ পুলিশের জনসংযোগ ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী মহাপরিদর্শক সোহেল রানা বলেন, “পুলিশের চাকরি অনেকটাই ‘থ্যাংকলেস জবের’ মতো। এটা মেনেই আমরা কাজ করি। জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা না থাকলে এই পেশায় কাজ করা সম্ভব না। চাকরি জীবনের শুরুতে পারিবারিক পরিবেশের জন্য হয়ত মন খারাপ হয়, কিন্তু পরে ধীরে সয়ে যায় সব।”

পুলিশ সদরদপ্তরের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, অন্য সব পেশার মানুষের মতো পুলিশ সদস্যদেরও নানা সময় বিচ্যুতি থাকে। এ জন্য গালমন্দও কম না। কিন্তু জনগণের প্রতি আমাদের ভালোবাসা আর ত্যাগটা সেভাবে স্বীকৃতি পায় না, এই দুঃখবোধ নিয়েই কাজ করে যাই।’

সূত্র:ঢাকাটাইমস

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!