নাঙ্গলকোটে সহকর্মীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউনিয়নের দাসনাইপাড়া ইসলামিয়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা এম এ ইউসূফ খাঁনের বিরুদ্ধে অফিস সহকারীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,ওই নারীকে বিভিন্ন সময়ে উত্তক্ত্য করতো শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিত,কুপ্রস্তাব দিত রাজী না হওয়ায় ২ নভেম্বর থেকে ওই নারীর শিক্ষক হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর বন্ধ করে দেন।এঘটনায় ৫ ডিসেম্নর ওই নারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এর আগেও ২০১৩,২০১৫ সালে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির কারনে তাকে কয়েকদপা চাকুরীচ্যুত করা হয়। অজ্ঞাত কারণে পার পেয়ে যায়।
ভুক্তভোগী ওই নারী বলেন,অধ্যক্ষ আমাকে বার বার যৌন হয়রানি করে,আমাকে কুপ্রস্তাব দেয় রাজী না হওয়ায় হাজিরা বইয়ে স্বাক্ষর বন্ধ করে দেন। আমি বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেয়ায় আমাকে নানাহ ভাবে হুমকি ধমকি দিতেছ।আমাকে মাদ্রাসায় ডুকতে দেয়না।আমি এর শাস্তি দাবি করছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মাওলানা এম এ ইউসূফ খাঁন অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এ বিষয়ে বুধবার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ নাছির উদ্দীন বলেন,পাল্টাপাল্টি অভিযোগ পড়েছে একটির তদন্ত মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা করছেন,অন্যটির তদন্ত আমিও সমাজসেবা কর্মকর্তা করছি।

error: Content is protected !!