চৌদ্দগ্রামে ব্যবসায়ীর উপর হামলা, দোকান ভাংচুর, লুট আহত ৩

কুমিল্লা থেকে শাকিল মোল্লা : কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গোবিন্দপুর বাজারে মেসার্স সেলিম ব্রাদার্স এর সামনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেলিম ব্রাদার্সে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালায় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় ৩ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে সেলিম জাহাঙ্গীরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে চিকিৎসা দেয়া হয়। বাকীদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানয় মামলা হয়েছে।
মামলার বিবরনে জানা যায়, পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগের দিন রাত আনুমানিক ১০ ঘটিকার দিকে গোবিন্দপুর বাজারে মেসার্স সেলিম ব্রাদার্সের সামনে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুল মান্নান এর পুত্র আব্দুল হান্নান (৩৫), সোলায়মান এর পুত্র মীর হোসেন (৩০), মোজাফর আলীর পুত্র আব্দুল মান্নান (৬৫), শাহ আলম এর পুত্র মোহন (২৮), আতর আলীর পুত্র শাহ আলম (৪৫), মোর্শেদ (২৫), আব্দুল মালেক এর পুত্র বিল্লাল (৩২) বসে আড্ডা দিচ্ছিল। ব্যবসার ক্ষতির কথা বলে ওই স্থান থেকে তাদের সরে জাবার কথা বললে ক্ষিপ্ত হয়ে এরা দেশিয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মেসার্স সেলিম ব্রাদার্স এর উপর হামলা চালায়। হামলা চালিয়ে দোকানের আসবাবপত্র ভাংচুর সহ নগদ টাকা লুট করে। এতে প্রায় সাড়ে ৯ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। হামলায় গোবিন্দপুর গ্রামের আবুল কালামের পুত্র মাষ্টার সেলিম (৩৮), ইয়াছিন এর পুত্র উজ্জ্বল (২৫), মৃত: আফসার উদ্দিন এর পুত্র আব্দুল হামিদ সর্দার (৭০), মৃত: আলী আহাম্মদ এর পুত্র আমির হোসেন আর্মি (৫২) আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করেন। এ ঘটনায় গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুল লতিফ এর পুত্র হায়াতুন নবী বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়।
এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মো: হারুনুর রশিদ জানান এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলার পর আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রেখেছি। তদন্ত সাপেক্ষে আসামীদের গ্রেফতার পুর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।
এ ব্যাপারে সেলিম ব্রাদার্স এর স্বাত্ত্বাধিকারী মো: সেলিম জাহাঙ্গীর জানান, ঘটনার পর থেকে প্রভাবশালিরা মামলা তুলে নিতে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমতি দিচ্ছে এবং আমাকে বিভিন্ন মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির ভয় দেখাচ্ছে। আমি প্রশাসনের কাছে ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!