কুমেক হাসপাতালে বিদ্যুৎ নেই চার দিন, দুর্ভোগ চরমে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পবিত্র ঈদুল ফিতরের রাত থেকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (কুমেক) বিদ্যুৎ নেই। আলো, বাতাস ও পানির সংকটের কারণে রোগীরা আরো বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ছে। অনেকে বাধ্য হয়ে হাসপাতাল ছাড়ছে।
হাসপাতালের ব্যবস্থাপনায় কিছু বিভাগে জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হলেও তাতে চলছে মাত্র একটি বাতি ও একটি পাখা। তবে চার দিনে কোনো আলো-বাতাস মেলেনি শিশু, অর্থোপেডিক্স, ডরমেটরি, জরুরি বিভাগ ও বহির্বিভাগের রোগী ও স্বজনদের। এ ছাড়া হাসপাতালের হাড় ভাঙা বিভাগসহ হাসপাতাল অন্যান্য বিভাগের রোগীদের সেবা চিকিৎসা হচ্ছে না নিয়মিত।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বেশির ভাগ ওয়ার্ডে মোমবাতির আলোতে চলছে রোগীর সেবা। গরমের এই সময়ে হাতপাখার বাতাসই আট শতাধিক রোগীর একমাত্র ভরসা।
হাসপাতাল সূত্র জানায়, শুক্রবার বিদ্যুৎ সংকটের চার দিন পার হলেও কোনো সুরাহা করতে পারেনি কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ-২ এবং পিডব্লিউডি কর্তৃপক্ষ। হাসপাতাল ও কোয়ার্টারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তা ওই দুই সংস্থাকে জানালে তারা পৃথকভাবে এসে দেখে গেছেন। তাদের বক্তব্য, মাটির নিচ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুৎ সংযোগ তার কেটে যাওয়ায় এই সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে জানতে পিডব্লিউডির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা জানায়, আগামী সোমবারের মধ্যে হাসপাতালের বিদ্যুৎ সংকটের সমাধান হতে পারে।
রোগীর স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার থেকে শিশু ও অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডে বিদ্যুৎ সংযোগ একেবারেই নেই। আবার কিছু ওয়ার্ডে শুধু একটি বাতি ও একটি পাখা চলছে। ফলে প্রচণ্ড গরমে রোগীরা আরো অসুস্থ হয়ে পড়ছে।
শুধু হাসপাতালের ওয়ার্ডেই নয়, বিদ্যুৎ নেই চিকিৎসকদের ডরমিটরি, কোয়ার্টার এবং নার্সিং ইনস্টিটিউটেও।
বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হচ্ছে স্বীকার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. স্বপন কুমার অধিকারী বলেন, ঈদের দিন রাত থেকে হাসপাতালের বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। ফলে আলো, বাতাস ও পানির সংকটে দুর্ভোগে পড়েছে রোগী, স্বজন, নার্স ও ডাক্তাররা।
কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ-২ এবং পিডব্লিউডি কর্তৃপক্ষকে উদ্ধৃত করে ডা. স্বপন কুমার অধিকারী বলেন, মাটির নিচ দিয়ে যাওয়া বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণে সমস্যা সমাধান করতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। তবে কবে নাগাদ সমাধান হবে নির্দিষ্ট করে বলেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!