কাস্টমসের শূন্য পদ পূরণে এনবিআরে ৬০০ কর্মকর্তা নিয়োগ

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : দেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সার্বক্ষণিক সচল রাখাসহ রাজস্ব আহরণে গতিশীল করতে ৮০ জন কর পরিদর্শক ও ৫৪৫ জন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।এক্ষেত্রে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টমসকে।রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে পাবলিক সার্ভিস কমিশন ওই কর্মকর্তা নিয়োগ দিয়েছে।অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী এনবিআর কাজ করছে। চট্টগ্রাম বন্দর দেশের রাজস্ব আদায়ের সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখে চলছে। দেশের ব্যবসা বাণিজ্য ও আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম আরো গতিশীল করতে চট্টগ্রাম বন্দর ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখা হবে। এ জন্য আমাদের প্রয়োজনীয় লোকবল লাগবে। লোকবল নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। আশা করছি আমদানি-রপ্তানির প্রধান ক্ষেত্র চট্টগ্রাম বন্দরে এরপর আর কোনো শূন্য পদ থাকবে না।তিনি বলেন, গতকালও চট্টগ্রাম বন্দর ও বেনাপোল বন্দরে বড় নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই দিনে পাবলিক সার্ভিস কমিশনও অনেক বড় একটা নিয়োগের ছাড়পত্র দিয়েছে। এ জন্য পিএসসির চেয়ারম্যানকে আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।এনবিআর সূত্র আরো জানায়, চট্টগ্রাম কাস্টমস ও বন্দরের সার্বিক কার্যক্রম সরজমিনে পরিদর্শন ও প্রয়োজনীয় সংস্কার করতে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল চট্টগ্রামে রয়েছে। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান। শুক্র ও শনিবার এ প্রতিনিধি দল কাস্টমস হাউস ও বন্দরসহ সকল স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে বৈঠক করবে। বৈঠককালে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রাম বন্দর পুরোদমে গতিশীল করতে সব ধরনের সমস্যা চিহ্নিত ও সমাধান করা হবে।এনবিআরের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সৈয়দ এ মু’মেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।সৈয়দ এ মু’মেন আরো জানান, সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের চট্টগ্রাম সফরে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হবে দেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সার্বক্ষণিক সচলের জন্য ২৪ ঘণ্টা কাস্টমস হাউস খোলা রাখতে জনবল সংকটের সমাধান করা। এ সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক ইতোমধ্যে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে এনবিআর। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার এনবিআর চট্টগ্রাম ও বেনাপোল কাস্টমস হাউসে ৯৩ জনকে নিয়োগ দিয়েছে। এদের মধ্যে অধিকাংশকেই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টমসে। একই দিনে পিএসসিও ৬২৫ জন রাজস্ব কর্মকর্তা নিয়োগের ছাড়পত্র দিয়েছে।এর আগে সম্প্রতি চট্টগ্রাম বন্দরে কনটেইনার জটকমাতে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয় এনবিআর। এ বিষয়ে জারি করা আদেশে বলা হয়, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কার্যক্রম প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা চালু থাকবে। সাপ্তাহিক ছুটি ও অন্যান্য সরকারি ছুটির দিন ছাড়া সব কর্মদিবসে সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত আমদানি ও রপ্তানি পণ্য চালানের পরীক্ষণ, শুল্কায়ন ও খালাস কার্যক্রম চলমান থাকবে। কর্মদিবসের বাকি সময় পণ্যের খালাসসহ আনুষঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কর্মব্যস্ততা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারীকে নিয়োজিত রাখতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!