আ.লীগকে জনগণ আবার ক্ষমতায় আনতে চায়: নাসিম

নিজস্ব প্রতিবেদক : টানা দুই দফা ক্ষমতায় ব্যাপক উন্নয়ন করায় আওয়ামী লীগকে আগামী নির্বাচনেও জনগণ ক্ষমতায় আনতে চায় বলে দাবি করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে জ্বালাও-পোড়াও করলে কঠোরভাবে দমন করা হবে। কারণ, জনগণ আন্দোলন চায় না।শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনায় এ দাবি করেন নাসিম। আওয়ামী লীগের ৬৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধু থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনা’ শীর্ষক এই আলোচনার আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট নামে একটি সংগঠন।নাসিম বলেন, ‘জনগণকে বলব- সব বিবেচনা করে ভোট দিন। বিগত সরকারের সময়ে দেশের কি উন্নয়ন হয়েছে, বর্তামন সময়ে সরকার কতটা উন্নয়ন করেছে আপনারা ভেবে দেখুন। দেশ পরিচালনায় শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীনের বিকল্প নেই।’স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আবেগতাড়িত হয়ে কথা বললে হবে না। অতীতের ও বর্তমান সরকারের মধ্যে তুলনা করে কথা বলতে হবে। দেশ ও দেশের মানুষ যখন নানা ক্ষেত্রে পিছিয়ে যাচ্ছিল, তা থেকে দেশকে কোথায় নিয়ে এসেছে আওয়ামী লীগ সরকার, এসব বিবেচনায় আনুন।’দেশের জন্য আওয়ামী লীগের গুরুত্ব তুলে ধরে নাসিম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত না হলে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হতো না। এটা কোনো আবেগের কথা না, ঐতিহাসিক সত্য।’আলোচনায় খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, ‘যত ষড়যন্ত্রই করা হোক না কেন বাংলাদেশের মানুষ সকল ষড়যন্ত্রেও মোকাবেলা করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে ভোটের মাধ্যমে আবারো ক্ষমতায় বসাবে।’খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী ২৯ জুন জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের মাধ্যমেই স্পষ্ট হবে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেট কতটা কল্যাণমুখী।’সংগঠনের কার্যকরী সভপতিত্ব অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য কামরুল হাসান খান, নাট্যব্যক্তিত্ব পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম প্রদ্দার, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!