আয় বেড়েছে গ্রামীণফোনের

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক : ২০১৭ সালের প্রথম প্রান্তিকের তুলানায় দ্বিতীয় প্রান্তিকে আয় বেড়েছে বেসরকারি টেলিকম অপারেটর গ্রামীণফোনের। এই প্রান্তিকে আয় হয়েছে ৩২৪০ কোটি টাকা। যা প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় ৫.৮ শতাংশ বেশি। আজ এক সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোন ২০১৭ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকের আর্থিক ফলাফল তুলে ধরে। এসময় গ্রামীণফোন জানায়, গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২ কোটি ৭০ লাখ। যা মোট গ্রাহকের শতকরা ৪৩.৯ শতাংশ।
গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল প্যাট্রিক ফোলি বলেন, এই প্রান্তিক খুবই প্রতিযোগিতামূলক ছিল, বিশেষ করে গ্রাহক যোগ করার দিক থেকে। এই পরিবেশে থেকেও আমরা ডাটা এবং ভয়েস উভয় খাতেই প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পেরেছি।’কর প্রদানের পর এই কোম্পানিটির প্রান্তিকে নেট মুনাফা হয়েছে ৭৯০ কোটি টাকা। উচ্চতর রাজস্ব এবং পরিচলন দক্ষতার ফলে ইবিআইটিডিএ (অন্যান্য আইটেমের আগে) ১৯৯০ কোটি টাকা। এই প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫.৮৭ টাকা।গ্রামীণফোনের সিএফও দিলীপ পাল বলেন, ‘এই প্রান্তিকে রাজস্ব প্রবৃদ্ধি এবং আয় বৃদ্ধি, প্রবৃদ্ধি আর দক্ষতার প্রতি আমাদের বিশেষ মনোযোগের বহিঃপ্রকাশ।’ সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের বোর্ড অব ডিরেক্টরস পরিশোধিত মূলধনের শতকরা ১০৫ ভাগ অন্তবর্তী লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়।গ্রামীণফোন এই প্রান্তিকে থ্রিজি ও টুজি কাভারেজ বিস্তারে এবং গ্রাহকের অভিজ্ঞতা উন্নয়নে ৩৩০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। এই সময়ে ১৪১টি টুজি এবং ২২৫টি থ্রিজি বেস স্টেশন (বিটিএস) নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়েছে, ফলে মোট টুজি বিটিএস এর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৩৬৩টি এবং থ্রিজি বিটিএস ১১ হাজার ৫৫৭টি। এই প্রান্তিকে কোম্পানি রাষ্ট্রীয় কোষাগারে কর, ভ্যাট, শুল্ক ও লাইসেন্স ফি আকারে ১৬৪০ কোটি টাকা জমা দিয়েছে, যা মোট রাজস্বের ৫০.৬ ভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!