You are here
Home > অর্থনীতি > বাংলাদেশে আটকে পড়া পেঁয়াজ পাঠাচ্ছে ভারত

বাংলাদেশে আটকে পড়া পেঁয়াজ পাঠাচ্ছে ভারত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :রপ্তানি বন্ধের পাঁচ দিন পর সীমান্তে আটকে পড়া পুরোনো এলসির বিপরীতে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে। ফলে দিনাজপুরের হিলি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে।হিলি স্থলবন্দর আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশীদ হারুন ও সহ-সভাপতি শাহিনুর রেজা শাহীন জানান, পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকেই পুরনো এলসিগুলোর বিপরীতে পেঁয়াজ রপ্তানি নিয়ে আমরা ভারতীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করে এসেছিলাম। সেই সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধের আলোকে মঙ্গলবার ভারতের দিল্লিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু তা ফলপ্রসু না হওয়ায় সেদিন বন্দর দিয়ে কোনো পেঁয়াজ রপ্তানি করেনি ভারত।
তারা আরো জানান, বুধবার আবার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সে বৈঠক ফলপ্রসু হওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকেলে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হওয়া পুরোনো এলসিগুলোর বিপরীতে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দেয়। কিন্তু কাস্টমসে সেই অনুমতির কপি না আসায় বৃহস্পতিবারও কোনো পেঁয়াজ রপ্তানি হয়নি। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সেই আদেশের কপি কাস্টমসে আসলেও সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় কোনো পেঁয়াজ দেশে প্রবেশ করেনি। আটকে থাকা পেঁয়াজগুলো রপ্তানির জন্য শুক্রবার ছুটির দিনেও বন্দর খোলা রাখার ভারতীয় ব্যবসায়ীদের অনুরোধে বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম খোলা রাখা হয়।
অপরদিকে পর চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থল বন্দরের বিপরীতের ভারতে মহদিপুর স্থলবন্দরে আটকে পড়া পেঁয়াজ শুক্রবার থেকে আসতে শুরু করে। বেলা ১২টার পর থেকে ভারতীয় পেঁয়াজভর্তি ট্রাক সোনামসজিদ স্থল বন্দরে আসা শুরু হয়।সোনামসজিদ স্থল বন্দরের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ জানান, ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার পরপরই মহদিপুর স্থলবন্দর থেকে পেঁয়াজ আসা বন্ধ হয়ে যায়। এতে কয়েক শ পেঁয়াজভর্তি ট্রাক আটকা পরে। কয়েকদিন অপেক্ষায় থাকার কারণে এসব পেঁয়াজে পচনও শুরু হয়েছিল।তিনি বলেন, ‘শুক্রবার সারাদিনে ২০০ পেঁয়াজের ট্রাক পাঠাবে বলে ভারতীয় সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা জানিয়েছেন। বিকেল পর্যন্ত প্রায় ১০০ ট্রাক পেঁয়াজ বন্দরে ঢুকে পড়েছে। বাকি পেঁয়াজবাহী ট্রাক দিনে মধ্যেই ঢুকে পড়বে’।
বন্দর সূত্র জানিয়েছে, ভারতের মহদিপুরে দূর্গাপূজার সরকারি ছুটি শুরু হলেও বিশেষ ব্যবস্থায় পাঠানো হচ্ছে পেঁয়াজ।
এদিকে শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভারত থেকে পেঁয়াজবাহী ট্রাক হিলি বন্দর দিয়ে প্রবেশ করে।ভারতের অভ্যান্তরীণ বাজারে পেয়াজের সংকট ও দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় রোববার বিকেল থেকে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশে পেঁয়াজ রপ্তানি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার।ব্যবসায়ীরা জানান, পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় পেঁয়াজের দাম হিলি স্থলবন্দরেই ৮০ থেকে ৮৫ টাকায় উঠে গিয়েছিল। কোনো স্থানে ১০০ টাকার ওপরে বিক্রি হচ্ছিলো। গত কয়েকদিনের ব্যবধানে তা কমে ৫০ থেকে ৬০ টাকায় নেমে এসেছে। নতুন এই পেঁয়াজ দেশের বাজারে ঢোকার ফলে পেঁয়াজের দাম আরও কমতে পারে বলে তারা জানিয়েছেন।
হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন জানান, আমদানিকারকদের পূর্বের এলসি করা পেঁয়াজগুলো দেশে প্রবেশের জন্য ভারত অভ্যান্তরে পাইপলাইনে ছিল। ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানির সিন্ধান্ত বদল করায় হিলি পার্কিংয়ে ৭০ ট্রাকের মতো পেঁয়াজ আটকা পড়েছিল। দুই দেশের সিন্ধান্ত মোতাবেক এই পেঁয়াজগুলো ভারত সরকার দেওয়া শুরু করেছে।

Top