১০ বছর বয়সী অন্ধ ফুটবলারের জীবন বদলে দিলেন মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক:ফুটবল খুব পছন্দ করে ১০ বছর বয়সী দৃষ্টিহীন শিশু মাইকি পুলি। সে আবার আর্সেনালের সমর্থক। মাত্র ৬ বছর বয়সে সে দৃষ্টিশক্তি পুরোপুরি হারিয়ে ফেলে। তবে অন্ধ হলেও সে কিন্তু ফুটবলার। তার জীবন বদলে দিলেন বিশ্বসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি।
নিজের আয়ের বড় একটা অংশ দাতব্য কাজে ব্যয় করেন মেসি। মহামারি করোনাভাইরাসের মধ্যে সাধ্যমতো দান করছেন তিনি। এবার মেসির কারণে জীবন বদলে গেল ১০ বছর বয়সী এ দৃষ্টিহীন শিশু পুলির।
পুলিকে নিজের ‘ড্রিম টিম’ এ নিয়েছেন মেসি। আর্জেন্টাইন মহাতারকা এই দল বানিয়েছেন অন্ধদের দৃষ্টিশক্তি ফেরানোর জন্য।
ওরক্যাম টেকনোলজিস নামের এ প্রতিষ্ঠান অন্ধদের জন্য বিশেষ চশমা প্রস্তুত করেছে। এই বিশেষ চশমাটি প্রতিবছর মেসি দৃষ্টিহীনদের দান করে থাকেন।
ছয় বছর বয়সে ‘রড কন ডিস্ট্রোফি’ রোগের জন্য চোখের দৃষ্টিশক্তি পুরোপুরি হারিয়ে ফেলেন পুলি। ‘ওরক্যাম মাই আই’ চশমা তাকে লেখা, বিভিন্ন বস্তু এবং লোকের কথা বুঝতে সাহায্য করবে।
পুলি বলেছেন, ‘ফুটবল আমার কাছে সবকিছু। আমি এটা খেলতে ভালোবাসি। মেসির সঙ্গে দেখা হলে তাকে বলবে আর্সেনালে একদিনের জন্য খেলতে পারি কি না’।
অন্যদিকে নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে মেসি এ বিষয়ে লিখেছেন, ‘অন্ধ ও দৃষ্টিশক্তির সমস্যায় থাকা মানুষদের সাহায্য করতে পেরে গর্ব লাগছে’।