সুন্দরগঞ্জে বৈইত উৎসব

গাইবান্ধা  সংবাদদাতা : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তিস্তার শাখা নদীতে গ্রাম বাংলার এক সময়ের ঐতিহ্য বৈইত উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধরা পড়েছে অসংখ্য নানান প্রজাতির মাছ।
মঙ্গলবার সকাল হতে দিন ব্যাপী উপজেলার বেলকা ইউনিয়নের ধুমাইটারি মোড় হতে বেলকা ফুটবল খেলার মাঠ পযন্ত তিস্তার শাখা নদীতে বৈইত উৎসব পালন করে মাছপ্রেমীরা। বিভিন্ন মাছ ধরার উপকরন পোল, চাক, কুরা, হেংঙ্গা জাল, মুটি জাল, ঝাইট জাল, কেটা নিয়ে হাজার মাছপ্রেমী মাছ ধরার জন্য নেমে পড়ে নদীতে। অনেকে ধরেছে কাতল, বেয়াল, শোল, মৃগা, রুই, কারপুসহ নানা প্রজাতির ছোট মাছ। আবার অনেকে মাছ না পেলেও দু:খ প্রকাশ করেননি।
বৈইত মারতে আসা ষাটউদ্ধ ফরমান আলী জানান, তিনি ৪০ বছর ধরে বৈইত মারেন । আজ থেকে ২০ বছর আগে হাট-বাজারে ঢোল পিঠিয়ে এবং মাইকিং করে বিভিন্ন খাল-বিল,নদী-নালায় বৈইত উৎসব করা হত। বর্তমানে বিভিন্ন খাল-বিল,নদী-নালা সরকারি ভাবে লিজ দেয়ার কারনে বৈইত উৎসব হচ্ছে না। তিনি বলেন আমি দুইটি কারপু মাছ পেয়েছি । আমি খুব খুশি।
বেলকা ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিলুল্যাহ জানান, প্রতি বছর ওরা বৈইত মারে । ওদেরকে বাধা দিয়ে কোন কাজ হয় না । তিনি বলেন আমার ইউনিয়নে তিস্তার অনেক শাখা নদী রয়েছে। সেখানে তারা প্রতি বছর বৈইত মারে ।
উপজেলা সহকারি মৎস অফিসার জানান, চলতি বছর কয়েক দফা বন্যা হওয়ার কারণে বিভিন্ন খাল-বিল,নদী-নালায় প্রচুর পরিমান মাছ পাওয়া যাচ্ছে। বৈইত উৎসব এখন নেই বললেই চলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.