সাকিবকে জরিমানা, সাথে এক ডিমেরিট পয়েন্ট

ক্রীড়া ডেস্ক : প্রেমাদাসায় রোমাঞ্চ আর নানা নাটকীয়তার ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এক চমৎকার জয় বাংলাদেশকে উপহার দেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এমন উত্তেজনাকর নাটকীয় জয়ে নিদহাস ট্রফির ফাইনালে উঠলো বাংলাদেশ। কিন্তু ম্যাচের শেষ ওভারে দুই দলের মধ্যে যেই ঝড় উঠেছে তাতে নিষেধাজ্ঞার কবলেই পড়তে হতো অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে। তবে স্বস্তির খবর, নিষেধাজ্ঞার ঝুঁকি থেকে বেঁচে গেলেন সাকিব।

ম্যাচের শেষ ওভারে বাংলাদেশের দরকার ছিল ১২ রান। ব্যাটিংয়ে রিয়াদ ও মোস্তাফিজ। পেসার উদানা ওভারের প্রথম বলটি করলেন শর্ট ও বাউন্সার। কিন্তু আম্পায়ার নো, ওয়াইড কোনোটাই ধরেননি। দ্বিতীয় বলটিও ছিল শর্ট ও বাউন্সার। কিন্তু সেটাও আম্পায়ার নো, ওয়াইড কোনোটাই দেন নি। বরং এতে রান আউট হন মোস্তাফিজ। আর তাতেই শুরু হয় ঝামেলার।

আম্পায়ারের এমন সিদ্ধান্তের জন্য ম্যাচ বর্জন করতে চেয়েছিল বাংলাদেশ! অধিনায়ক সাকিব ক্রিজের দুই ব্যাটসম্যান রিয়াদ ও রবেলকে মাঠ থেকে চলে আসতে ইঙ্গিত করেছিলেন। যার কারণে সাকিবের সামনে নিষেধাজ্ঞার হুমকি ছিল। তবে সেটা হয়নি।

শুক্রবার রাতে ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড সাকিবকে ২৫ শতাংশ ম্যাচ ফি জরিমানা আর একটি ডিমেরিট পয়েন্ট দিয়েছেন। সাকিবের পাশাপাশি এক ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন নুরুল হাসান সোহান। উত্তেজনার মুহূর্তে লঙ্কানদের সাথে কথার কাটাকাটির ঝামেলায় ঝড়িয়ে যান সোহান। যার কারণে মূল একাদশে না থেকেও ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন তিনি।

টিম ম্যানেজমেন্টদের তথ্য অনুসারে, ম্যাচ রেফারি বুঝতে পেরেছেন ঘটনার উৎপত্তি আসলে আম্পায়ারের ভুলে হয়েছিলো! তাই সাকিব-নুরুলকে বেশি জরিমানা গুনতে হয়নি।

শুক্রবার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৫৯ রান তাড়া করে টানটান উত্তেজনা আর নানা নাটকীয়তায় ১ বল বাকি থাকতে জয় পায় বাংলাদেশ।

আগামী ১৮ মার্চ নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। রবিবার কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.