লালবাগে বিশৃঙ্খলাকারীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছি: কাদের

রাজধানীর লালবাগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষে জড়িতদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয়ার কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, এই ঘটনায় পুলিশের পাশাপাশি জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তসাপেক্ষে দলও সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবে।

বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে মহিলা আওয়ামী লীগের এক আলোচনায় এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণে ইউনেস্কো বিশ্ব প্রামাণ্য ঐহিহ্যের অংশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় এই আলোচনার আয়োজন করা হয়।

এ সময় লালবাগে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ নিয়ে কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

সকালে নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন করতে নেয়া কর্মসূচিতে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের অনুসারীদের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।

এ সময় সাঈদ খোকনের অনুসারীরা কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ও ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়ে তাদেরকে তাড়িয়ে দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে ১৩ জনকে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘লালবাগের ঘটনায় যারা শৃঙ্খলা নষ্ট করেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মহানগর পুলিশ কমিশনারকে অনুরোধ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে দুয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘দল ক্ষমতায় থাকলে আদর্শিক কর্মীদের সঙ্গে কিছু পরগাছাও থাকে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যারা শৃঙ্খলা নষ্ট করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ইতিমধ্যে অনেকই আটক করা হয়েছে। বিশৃঙ্খলাকারীদের তদন্ত স্বাপেক্ষে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

অন্য কোনো সরকারের আমলে দলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়ার ইতিহাস নেই দাবি করে কাদের বলেন, ‘অতীতে অনেক দলের নেতা-কর্মী অনেক অপরাধ করে পার পেয়ে গেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সব সময় কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে শুধু সাংগঠনিক নয়, প্রশাসনিক ব্যবস্থাও নিয়েছে। সে জন্য সংসদ সদস্য হয়েও কারাগারে থাকা, মন্ত্রী হয়েও আদালতে হাজিরা দেওয়ার ঘটনা দেখা যায়।’

আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের নারী কর্মীদেরকে সক্রিয় হওয়ার তাগাদা দেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘নির্বাচনের জন্য সকলকে পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে সরকারের উন্নয়নের কর্মকাণ্ডের কথা বলতে হবে। উঠান বৈঠক করতে হবে। এবারের নির্বাচন একটি চ্যালেঞ্জিং নির্বাচন।’

শনিবার সোহরাওয়ারদী উদ্যানের সমাবেশের কথা উল্লেখ করে কাদের বলেন, ‘নাগরিক সমাবেশটি হবে সর্বকালের সেরা সমাবেশ।’

এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সমালোচনা করে কাদের বলেন, ‘আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ন্যায়বিচার পাবেন না। আদালতের উপর আপনার বিশ্বাস নাই। তাহলে আদালতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বক্তব্য দিয়েছেন কেন? আপনার আত্মপক্ষ বক্তব্য তো নতুন করে বিশ্বরেকর্ড হবে।

মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে আলোচনায় আরও উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, মহিলা সম্পাদক ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা খাতুন কৃক, দপ্তর সম্পাদক রোজিনা নাছরীন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.