রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় সাইনবোর্ড স্থাপন

রাঙ্গামাটি, ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ : পাহাড় ধস ও দুর্যোগ মোকাবিলায় জনসচেতনতা সৃষ্টির কার্যক্রম হিসেবে বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত করে তাতে বসবাস করার উপর নিষেধাজ্ঞা ও সচেতনামূলক বিষয়ক সাইনবোর্ড স্থাপন করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন।
আজ সকালে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে শহরের পাহাড়ী এলাকায় বসবাসরত ঝুকিপূর্ণ এলাকাগুলোর বিভিন্ন স্থানে বসবাস করার নিষোধজ্ঞা বিষয়ক সাইনবোর্ড স্থাপন করা হয়। এসময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এসময় জেলা প্রশাসক জানান, রাঙামাটিতে বর্ষার আগেই সম্ভাব্য পাহাড় ধস ও দুর্যোগ মোকাবেলায় নেয়া হচ্ছে পূর্ব প্রস্তুতি। সামনে বর্ষার আগেই গত মৌসুমে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক, রাস্তা-ঘাট, সেতু মেরামত ও পুনঃনির্মাণ সম্পন্ন করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
এছাড়াও তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ভূমিধসের প্রাকৃতিক ও কৃত্রিম সম্ভাব্য কারণগুলো চিহ্নিত করে পাহাড়ের সুরক্ষা নিশ্চিত করা, পাদদেশের বসতি সরানো, কারিগরি বিষয়গুলো বাস্তবায়নকে অগ্রাধিকারে রাখা হয়েছে আমাদের কর্মপরিকল্পনায়।
ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাস করার নিষেধাজ্ঞা জারি ও সচেতনামূলক বিষয়ক সাইনবোর্ড স্থাপন শেষে এলাকায় বসবাসরত জনগণের সাথে জেলা প্রশাসন বসবাস করার নিষেধাজ্ঞা ও সচেতনামূলক বিষয়ে আলোকপাত করেন।
উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ১৩ জুন ভয়াল পাহাড় ধসের দুর্যোগে রাঙামাটিতে ৫ সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের প্রাণহানি ঘটে। এছাড়া ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ব্যাপক। ভবিষ্যতে যাতে আর কোনো প্রাণহানি না ঘটে এবং জানমালের ক্ষতি রক্ষায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পূর্ব প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!