মক্কার গ্রান্ড মসজিদে হামলার চেষ্টা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মুসলিমদের পবিত্র স্থান, মক্কার গ্রান্ড মসজিদে একটি সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেয়া হয়েছে বলে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষের। এখানেই মুসলমানদের পবিত্র ঘর কাবা অবস্থিত। একটি ভবন ঘিরে পুলিশের অভিযানের সময় এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী নিজেকে বোমায় উড়িয়ে দিয়েছে।
সৌদি স্বরাষ্ট্র দপ্তরের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, এ সময় ওই ভবনটি বিধ্বস্ত হয়ে ১১ জন ব্যক্তি আহত হয়েছে। হামলার পর ভবনটি ধসে পড়লে ছয় জন বিদেশি ও পাঁচজন নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মী আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজন সন্দেহভাজন জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে কিভাবে বা কারা ওই হামলার পরিকল্পনা করছিল, সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু এখনো জানায়নি সৌদি কর্মকর্তারা।
রমজান মাসের শেষের দিকে সারা বিশ্ব থেকে এখন মক্কায় সমবেত হচ্ছেন লাখ লাখ মুসলমান। ধারণা করা হচ্ছে, আগামীকাল রবিবার সৌদি আরবে ঈদুল-ফিতর অনুষ্ঠিত হবে। রমজানের মাসের শেষের দশদিন সারা বিশ্ব থেকে পুণ্যার্থীরা মক্কায় জড়ো হতে থাকেন।
এই ঘটনার পর আল-অ্যারাবিয়ার টিভি ফুটেজে দেখা গেছে, মুসল্লিরা নির্বিঘ্নে মক্কায় ইবাদত করছে। কারা এই হামলা চালিয়েছে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।
২০১৬ সালের জুলাই মাসে মদিনায় ইসলামের নবীর মসজিদের কাছে একটি আত্মঘাতী বোমা হামলায় চারজন নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়েছিলেন। সম্প্রতি সৌদি আরবে বেশ কয়েকটি রক্তক্ষয়ী হামলার ঘটনা ঘটেছে, তার বেশ কয়েকটি নিজেদের চালানো বলে দাবি করেছে তথাকথিত জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস)।যদিও এর বেশিরভাগ হামলাই চালানো হয়েছে দেশটির শিয়া সংখ্যালঘু আর নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশ্য করে।
ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের জোটে রয়েছে সৌদি আরব। এছাড়াও সিরিয়া ও ইরাকের অন্য জিহাদি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধেও দেশটি লড়াই করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!