ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে যুক্তরাষ্ট্র,মৃত্যু ৩১ জনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ভয়াবহ দাবানলে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চল। এই দাবানলে এখন পর্যন্ত অন্তত ৩১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এখনো নিখোঁজ রয়েছে আরো অনেকে। রাজ্যটির এক কর্মকর্তা বলেছেন, সেখানে বহু প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে।
সংবাদ সংস্থা বিবিসির খবরে জানা যায়, গত তিন সপ্তাহ ধরে ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে ক্যালিফোর্নিয়া, ওরেগন ও ওয়াশিংটন রাজ্যের বিস্তৃত এলাকা। প্রবল বাতাসের কারণে দাবানল আরো তীব্র হয়ে ছড়িয়ে পড়ছে। এতে হাজার হাজার ঘরবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে, পুড়েছে মিলিয়ন একর এলাকা। প্রায় ১০ হাজার মানুষ বাধ্যতামূলকভাবে তাদের বাড়িঘর ছেড়েছেন।
যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন শনিবার সতর্ক করে বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন আমাদের অস্তিত্বের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই বাস্তবতা অস্বীকার করার জন্য তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করেন।
এদিকে ট্রাম্প শনিবার এক ব্রিফিংয়ে দাবানলের কারণ হিসেবে দুর্বল বন ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেছেন।
ওরেগনে দমকল কর্মীরা ১৬টি বড় দাবানলের সঙ্গে লড়াই করছেন। সেখানকার ৪০ হাজার মানুষকে বাধ্যতামূলকভাবে এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
ওরেগনের ইমারজেন্সি ম্যানেজমেন্ট দফতর (ওইএম) জানিয়েছে, দাবানলে এখন পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা আরো অনেক বাড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন রাজ্যটির কর্মকর্তারা।
রাজ্যটির গভর্নর কেইট ব্রাউন বাসিন্দাদের দাবানল আক্রান্ত এলাকাগুলোর বাইরে চলে যাওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।
এদিকে, দাবানলের কারণে লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে যাওয়ার পর ওরেগনের কোনো কোনো এলাকায় লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।
কেইট ব্রাউন বাসিন্দাদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিয়ে বলেছেন, পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও লুটপাট ঠেকাতে ওরেগন ন্যাশনাল গার্ড ও ওরেগন রাজ্য পুলিশকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। সূত্র: গ্লোবাল নিউজ, বিবিসি