বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান হার্টের বাল্ব নষ্ট হয়ে মৃত্যুর পথে জগন্নাথের সোহরাব হোসেন

মোঃ বেলাল হোসাইনঃ

মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান হলেও নিজের পরিশ্রমের দরুন ভালোই কাটছিল সোহরাব হোসেনের সংসার। ল্যাব টেকনিশিয়ান হিসেবে ঢাকায় এবং সর্বশেষ ফেনীর একটি হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। যা দিয়ে পিতা-মাতা ও ২ ছেলে ২ মেয়ের সংসার মোটামুটি ভালোভাবেই কাটছিল। সোহরাব হোসেনের বড় মেয়ে এইচএসসিতে এবং ছোটমেয়ে জেএসসিতে, দ্ইু ছেলের বড়টি মাদ্রাসায় আর ছোটটি কেজি ১ম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত।
কিন্তু হঠ্যাৎ একটি আচমতা ঝড়ে সোহরাব হোসেনের সুখের সংসার তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়ল। ফেনীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চাকুরীরত অবস্থায় বিগত ৩-৪ মাস পূর্বে তিনি অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এ অবস্থায় ডাক্তারের স্বরনাপন্ন হন। পরিক্ষা নিরীক্ষা শেষে ডাক্তার জানান, সোহরাব হোসেনের হার্টের ১টি বাল্ব একেবারে নষ্ট এবং ১টি কিডনি বিকল হওয়ার পথে। অভাব-অনটনের সংসারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তির এই পরিস্থিতিতে বর্তমানে দিশেহারা পরিবারটি। সংসারের গ্লানি আর ছেলে-মেয়েদের পড়ালেখার খরচ চালোনোর কারনে সম্ভব হয়নি বাড়তি কোন অর্থ সঞ্চয় করারও। পাশাপাশি বাড়ির জায়গা ব্যতিত নেই বাড়তি কোন জায়গা যা বিক্রি করে চিকিৎসা করানো যেত সোহরাব হোসেনের।
সোহরাব হোসেনের খালাত ভাই কাজী মো ঃ নাছিম জানান, সর্বশেষ গত কয়েকদিন পূর্বে কুমিল্লা টাওয়ার হাসপাতালের হার্ট বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মিজানুর রহমানের স্বরনাপন্ন হলে তিনি জানান, সোহরাব হোসেনের চিকিৎসার জন্য আনুমানিক ৮-১০ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। যা পরিবারের পক্ষে কোনভাবেই জোগাড় করা সম্ভব না। আর্থিক অনটনের কারণে বর্তমানে ভাইকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল নেওয়ার কোন সিদ্ধান্তও নিচে পারছে না তারা। এমতাবস্থায় সমাজের বিত্তবানদের নিকট ভাইকে বাঁচানোর আকুল আবেদন জানান নাছিম। সোহরাব হোসেনের বৃদ্ধ মাতা সালেহা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে ছেলেকে বাঁচানোর আকুল আবেদন জানান সমাজের বিত্তবান ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নিকট।
অসুস্থ্য সোহরাব হোসেনের চিকিৎসায় আগ্রহীরা আর্থিক সহযোগীতা করতে চাইলে নি¤েœাক্ত- ০১৮১৭৭৫৪০৬৬ (বিক্যাশ পারসোনাল) কিংবা ইসলামী ব্যাংক, চৌদ্দগ্রাম শাখার চলতি হিসাব নং- ২২৯৬২ এ টাকা পাঠাতে পারেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!