প্রধান বিচারপতির পদত্যাগপত্র নিয়ে সন্দেহ বার সমিতির

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগের দিনটি বিচার বিভাগের জন্য একটি কালো অধ্যায় হিসেবে অভিহিত করেছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। একই সঙ্গে পদত্যাগপত্রটি প্রধান বিচারপতি লিখেছেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে।

শনিবার বিকাল সোয়া পাঁচটার দিকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে সমিতির সভাপতির কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলেন আইনজীবী সংগঠনটির সভাপতি জয়নুল আবেদীন।

রাষ্ট্রপতির কাছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগপত্র পাঠানোর কথা ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছেন উল্লেখ করে জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘উনি (রাষ্ট্রপতি) পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। এখন প্রধান বিচারপতির পদ শূন্য রয়েছে। প্রধান বিচারপতির পদ শূন্য থাকতে পারে না।’

নতুন প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়ার পর আগামী দিনে বিচার বিভাগ কীভাবে চলবে তা বুঝতে পারবেন বলে জানান সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীদের এই নেতা। তিনি আশা প্রকাশ করেন, রাষ্ট্রপতি তার প্রজ্ঞা ও বিবেক দিয়ে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেবেন।

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয় সংবাদ সম্মেলনে। জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের বিষয়টি নজিরবিহীন। তিনি আদৌ পদত্যাগপত্র লিখেছেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। উনি সিঙ্গাপুরে থেকে কীভাবে রাষ্ট্রপতির কাছে পদত্যাগপত্র পাঠালেন তা জনগণের জানার অধিকার রয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি বলেন, ‘আইনমন্ত্রী গতকাল বলেছিলেন ই-মেইলের মাধ্যমে পদত্যাগপত্র পাঠালে তা গ্রহণ করা হবে না। ওনার (প্রধান বিচারপতি) কোনো ছুটি বৃদ্ধি করা হয়নি। সকাল বেলায়ও জানলাম তিনি পদত্যাগপত্র দেননি। দুপুরে জানলাম পদত্যাগপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে এসেছে। এর আগে শুনেছি উনি কানাডা চলে গেছেন। তাহলে উনি কীভাবে পদত্যাগপত্র দিলেন?’

Leave a Reply

Your email address will not be published.