প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নিরাপত্তায় এসপিবিএন

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নিরাপত্তার দায়িত্ব পেল পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট এসপিবিএন (স্পেশাল সিকিউরিটি অ্যান্ড প্রটেকশন ব্যাটালিয়ন)। এতদিন এই কার্যালয়ের নিরাপত্তায় ছিল ঢাকা মহানগর পুলিশ। অন্যদিকে এসপিবিএন গত চার বছর ধরে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে আসছে।

বুধবার সকাল নয়টার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এসপিবিএনের প্রায় সাতশ সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন শুরু করে। গাঢ় নীল রঙের প্যান্ট ও ধূসর রঙের শার্ট পরিহিত বাহিনীটির নেতৃত্বে আছেন একজন উপপরিদর্শক। স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) সঙ্গে সমন্বয় করে এ বাহিনী কাজ করবে।

পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট-১ এর পুলিশ সুপার হায়দার আলী বলেন, ‘এতদিন আমরা শুধু গণভবনের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলাম। কিন্তু আজ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দায়িত্ব পালন করব। এরজন্য আমাদের অতিরিক্ত সাতশ ফোর্স কাজ করবে। প্রয়োজনে আরো অতিরিক্ত ফোর্স ও বাড়ানো হতে পারে।’

রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ দেশি-বিদেশি অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের (ভিভিআইপি) নিরাপত্তা দিতে পুলিশের নতুন বিশেষায়িত ব্যাটালিয়ন এসপিবিএন এর যাত্রা শুরু হয় ২০১৩ সালের ৫ জুলাই। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে এসপিবিএন-১ এর প্রায় দুইশ সদস্য মোতায়েন করা হয়। গণভবনের চারদিকের সীমানা প্রাচীর ও এর চৌকিতে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে এসপিবিএন। গণভবনে প্রবেশ করা গাড়িও তল্লাশি চালায় তারা।

গণভবনের মত একইভাবে তারা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চারদিকের সীমানা প্রাচীর সংলগ্ন চৌকিগুলোতে নজরদারি করার জন্য তাদের মোতায়েন আছে। এছাড়া কার্যালয়ের প্রবেশ গেটে পুলিশের বিশেষ শাখার সদস্যদের সঙ্গে তারা কাজ করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.