নিরাপত্তার নতুন চুক্তি গার্মেন্টসে

ডেস্ক রিপোর্ট :বাংলাদের তৈরি পোশাক শিল্পের কারখানার নিরাপত্তা মান উন্নয়নে কাজ করার মেয়াদ তিন বছর বাড়ালো আন্তর্জাতিক ফ্যাশন ব্র্যান্ড ও ট্রেড ইউনিয়ন। বৃহস্পতিবার প্যারিসে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক ইন্ডাষ্ট্রিয়াল গ্লোবাল ইউনিয়ন ও ইউএনআই গ্লোবাল ইউনিয়ন এবং আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের প্রতিনিধিরা এ সংক্রান্ত চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন।
ইউরোপীয় ব্র্যান্ডগুলি বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলির অগ্নি ও ভবন নিরাপত্তা বিষয়ক প্রচারণা ও তদারকি কার্যক্রমের পাঁচ বছরের মেয়াদ আগামী বছরের মে মাসে শেষ হতে যাচ্ছে। নর্থ আমেরিকান নামে আরেকটি গ্রুপ অবশ্য পোশাক কারখানার নিরাপত্তার বিষয়ে পৃথকভাবে কাজ করছে।
ইউনি গ্লোবাল ইউনিয়নের উপ মহাপরিচালক ক্রিশ্চি হফম্যান জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে ২৩টি কোম্পানি নতুন চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। এসব কোম্পানির মধ্যে রয়েছে কেমার্ট, প্রাইমার্ক, এইচএন্ডএম, ইনডিটেক্স, সিএন্ডএ, ওটো, কিকি, আলদি সাউথ, আলদি নর্থ, লিডি, টাকিবো, লিডল, হেলি হ্যনসেন ।তবে এর আগের চুক্তিতে যে ২১৭টি ব্র্যান্ড স্বাক্ষর করেছিল তারাও নতুন চুক্তিতে অংশ নেবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।
হফম্যান জানান, প্রাথমিক চুক্তিতে ২৫ লাখ শ্রমিককে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।
ইন্ড্রাস্টিয়াল অলের মহাসচিব ভাল্টার সানচেজ জানিয়েছেন, আগের চুক্তি অনুযায়ী যেসব ভবনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে, নতুন চুক্তিতে সেসব ভবনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়মিত পরিদর্শণের বিষয়টি যুক্ত করা হয়েছে।
২০১৩ সালের এপ্রিলে রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর ইউরোপের ও আমেরিকার উদ্যোগে আলাদা দুটি প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলোর অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়। ২২৮টি ব্র্যান্ডের সমন্বয়ে গঠিত জোট অ্যাকর্ড প্রায় দেড় হাজার কারখানার প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে সংস্কার কাজ তদারক করছে। আর অ্যালায়েন্সের সদস্যভুক্ত ৩০টি ব্র্যান্ড প্রায় ৭০০ কারখানার সংস্কার কাজ তদারক করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!