নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের মধ্যে উদ্বেগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণের ঘটনার পর সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। হামলার ওই ঘটনায় আটক ব্যক্তি বাংলাদেশি বলে দেশটির পুলিশ জানালে এই উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে। হামলাকারী ওই ব্যক্তির নাম আকায়েদ উল্লাহ। ২৭ বছর বয়সী এই যুবক ব্রুকলিনের বাসিন্দা বলে জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক পুলিশ কমিশনার জেমস ও নীল। খবর বিবিসির।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালে এইটথ অ্যাভিনিউ ও ৪২ স্ট্রিটের কাছে বিস্ফোরণটি ঘটে। বিস্ফোরণের পর পর বাস টার্মিনাল ও সংলগ্ন সাবওয়ে স্টেশনে অবস্থানরত যাত্রীরা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ছোটাছুটি শুরু করেন। বিস্ফোরণের পর শরীরে ‘নিম্ন-প্রযুক্তি’র একটি বোমা বাধা অবস্থায় আকায়েদ উল্লাহকে আটক করার কথা জানায় দেশটির পুলিশ। এছাড়া তার কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের তার ও ডিভাইস জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশকে উদ্ধৃত করে নিউ ইয়র্ক টাইমসসহ যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, আকায়েদউল্লাহ একজন বাংলাদেশি অভিবাসী এবং ব্রুকলিন এলাকার বাসিন্দা। এরপর থেকে সেখানকার বাংলাদেশি কম্যুনিটির মধ্যে উদ্বেগ আর দুশ্চিন্তা ছড়িয়ে পড়ে।

নিউইয়র্কে দীর্ঘদিন ধরে একটি তথ্য প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র চালাচ্ছেন ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিফ। তিনি বলেন, স্বাভাবিকভাবে পুরো কম্যুনিটির মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে। যেসব জায়গায় বাংলাদেশিদের বেশি আনাগোনা, বিস্ফোরণের পর সেই আনাগোনা একেবারেই কমে গেছে।

এছাড়া যাদের বৈধ কাগজপত্র আছে এবং নাগরিকত্বের প্রক্রিয়া শুরু করেছেন তারাও ভয় পাচ্ছেন। যারা অবৈধ আনডকুমেন্টেড কিন্তু কাগজপত্রের জন্য অ্যাপ্লাই করেছে, তারা সবাই দুশ্চিন্তায় আছেন। বৈধতার কাগজপত্র তৈরির পথে এ ঘটনার প্রভাব পড়তে পারে আশঙ্কায় আছেন সবাই।

হানিফ আরও জানান, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিবাসনবিরোধী নীতির মধ্যে এ ধরণের ঘটনা স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ তৈরি করে।

বাংলাদেশি কম্যুনিটির সকলেই একবাক্যে বলছেন, হামলাকারী ‘বাংলাদেশী অভিবাসী’ হলেও সে কিছুতেই বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করে না। তার শাস্তি হওয়া উচিত বলে মনে করেন কম্যুনিটির নেতৃবৃন্দ।

নিউইয়র্ক থেকে সাংবাদিক লাভলু আনসার জানান, আকায়েদ উল্লাহ ব্রকলিনের ফ্ল্যাটল্যান্ডস এলাকার থাকতো। তার বাড়িটি এখন ঘেরাও করে রাখা হয়েছে। আকায়েদ উল্লাহ একটি বৈদ্যুতিক সামগ্রীর দোকানে কাজ করতো এবং সেখানেই বোমাটি তৈরি করা হয় বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.