নাঙ্গলকোটে রাস্তার জায়গা নিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর

শরীফ আমহেদ মজুমদার :
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে রাস্তার জায়গা নিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর ও গাছ কর্তনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউপির দাসনাপাড়া গ্রামের মৃত. নুরুল আমিনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে রায়কোট ইউপির মাহিনী-কুকিরখিল গ্রামের সড়কে ইটের সলিং এর কাজ চলছে। সলিং এর কাজ দাসনাপাড়া গ্রামের মৃত. নুরুল আমিনের স্ত্রী নুরুজ্জাহান বেগমের বসত ঘরের কাছে গেলে স্থানীয় মেম্বার জসিম উদ্দিন ওই ঘর ভাঙ্গার নির্দেশ দেন। ওই দুপুরে কাউকে কোনো কিছু না জানিয়ে মেম্বার জসিম উদ্দিন প্রায় ১০-১৫ টি বিভিন্ন জাতের গাছ কাটতে থাকলে নুরুজ্জাহান বেগম এসে বাঁধা দেয় এবং কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির একপার্যায়ে আগ থেকে উৎপেতে থাকা একই গ্রামের আলী হায়দারের ছেলে এনায়েত মজুমদার তার ভাই জরুল হক, মৃত. আবুর রহমানের ছেলে রশিদ, এনামুল হকের ছেলে জুয়েল, জরুল হকের ছেলে পরহান, ফাবেল, কামরুল সহ প্রায় ২০-২২ জনের একটি গ্রুপ অসহায় নুরুজ্জাহান বেগমের বসত ঘরটি ভাংচুর করে নগদ ২০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে নুরুজ্জাহান বেগম বলেন, মেম্বার জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে ২০-২২ জনের একটি গ্রুপ তার বসত ঘরটি ভাংচুর করে এবং তাকে পিটিয়ে আহত করে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত মেম্বার জসিম উদ্দিন জানান, রাস্তার উন্নয়নের স্বার্থে ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের নির্দেশে এই কাজ করা হয়েছে।
ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি এখন মিটিংয়ে আছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.