নাঙ্গলকোটে বিয়ের আগে সন্তান প্রসব,একদিন পর নবজাতকের মৃত্যু

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলখাঁড় ইউপির ভোলাকোট গ্রামের ১০ম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ের আগে এক নবজাতক কন্যা সন্তান জম্ম গ্রহন দেন। একদিন পর নবজাতক সন্তানটির হাসপাতালে মৃত্যু হয়।
স্কুল ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, একই গ্রামের ইউছুপের ছেলে জাহিদের সাথে দেড় বছর ধরে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত ১১ মার্চ রাতে জাহিদ ওই ছাত্রীটিকে মুঠো ফোনে তার বাড়ীতে ডেকে নিয়ে যান। এর পর পালাক্রমে তাকে ধর্ষন করে। কিছু দিন পর পরেই ওই ছাত্রীকে জাহিদ ধর্ষন করতে থাকে। প্রেমের সম্পর্ক থাকার কারণে ছাত্রীটি বিষয়টি কাউকে বলেনি। গত শনিবার তার পেট ব্যাথা হলে তাকে নাঙ্গলকোট পাটোয়ারী প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করান।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, সন্ধ্যার পর মেয়েটি আল্ট্রা করতে এলে ডাক্তার তাকে আল্ট্রা রুমে নিয়ে গেলে তার কন্যা সন্তান প্রসব করেন। রাত ১ টার দিকে নবজাতককে নিয়ে তার পরিবার কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। গতকাল রোববার সকালে নবজাতকের মৃত্যু হয়।
এলাকাবাসী জানান, ওই গ্রামে দরবেশ বাড়ীতে প্রতি মাসের বাংলা ২৭ তারিখে একটি মজমা বসান কাশেম কবিরাজ। তেল পড়াসহ ঝাড় ফুক দেয়। এই কারণে বাড়ীটির পরিবেশ দূষণ হচ্ছে।
সরেজমিনে গিয়ে অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে পাওয়া যায়নি ও তার মা বিষয়টি অস্বীকার করেন।
এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আইয়ুব জানান, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করছে। পুলিশ আসামীদের গ্রেফতার করার জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তদন্তে স্বার্থে আসামীদের নাম বলা যাচ্ছে না।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.