1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০১:২২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ফেঞ্চুগঞ্জে রেলওয়ের ভূমিতে ভবন: উচ্ছেদ অভিযানে এসে ফিরে গেলেন উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কুমিল্লায় প্রাইভেট কার ভর্তি গাঁজাসহ একজন গ্রেপ্তার করোনায় বিশ্ব লণ্ডভণ্ড আত্মহত্যার হার বেড়েছে জাপানে বইমেলা হবে তারিখ চূড়ান্ত করবেন…. প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিবাদের শেকর মূলোৎপাটন করা হবে…আইজিপি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নের দাঁড়াচৌ নূরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার তাফসিরুল কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস শুরু ১ এপ্রিল সংসদ অধিবেশন উপলক্ষে ডিএমপির নিষেধাজ্ঞা ফিলিস্তিনে ১৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নির্বাচন

নাঙ্গলকোটে আদম ব্যাপারীর বিচার করায় মামলা দিয়ে হয়রানি

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : বুধবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮
  • ১৪ বার পড়া হয়েছে

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি :
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে আদম ব্যাপারী মো: মনির আহম্মদ ভূঁইয়ার শালিস করায় মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে হতাশায় রয়েছে শালিসের সভাপতি ও বাদী।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৬ সালে ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর উপজেলার মাইলাকান্দা গ্রামের মৃত. হারুন রশিদ ফকিরের ছেলে আলমগীর হোসাইনকে বিদেশ নেওয়ার কথা বলে নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউপির মাহিনী গ্রামের মো: আমিন উল্লাহর ছেলে আদম ব্যাপারী হাফেজ মো: মনির আহম্মদ ভূঁইয়া, আলমগীর হোসেনের কাছ থেকে তার কর্মস্থল সদর দক্ষিণ উপজেলার যুক্তিখোলা বাজারে স্থানীয় লোকজনদের স্বাক্ষী রেখে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা নেয়। পরে মনির একটি ওমানের ভিসা দেয় আলমগীরকে। সে ওমান চলে যায়। এরপর মালিক একসাপ্তাহের মধ্যে তাকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়। পরে এ নিয়ে একটি শালিস বসে, এবং ৩ লাখ টাকা জরিমানা করে। পরে আদম ব্যাপারী মনির রূপালী ব্যাংক ভূচ্চি বাজার শাখার ৩ লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করে। ব্যাংকে টাকা না থাকায় চেকটি বাতিল হয়।
পরে গত ১৬ আগস্ট ২০১৬ সালে আলমগীর বাদী হয়ে কুমিল্লার আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার সমন পাওয়ার পর অভিযুক্ত মনির ক্ষিপ্ত হয়ে কুমিল্লার আদালতে শালিসের বিচারক ও বাদীকে চেক চুরির মামলা করে। মামলাটি বিচারক খারিজ করে দেয়। পরে আলমগীরের যুক্তিখোলা বাজারের ফল দোকানে ইয়াবা দিয়ে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করলে বাজারের ব্যাবসায়ীদের প্রতিবাদের মুখে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়।
এরপর ২ আগস্ট ২০১৭ সালে আদম ব্যাপারী মনির তাদের বিরুদ্ধে আরো একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি নাঙ্গলকোট থানাকে তদন্তের নির্দেশ দেয়। আবার গত ৮ আগস্ট ২০১৭ সালে আদালতে আরো একটি মামলা দায়ের করেন। এই তিনটি মামলার আসামী ওই শালিশের বাদী মো: আলমগীর হোসেন, শালিশের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মেম্বার, বিচারক কবির ও আব্দুল মজিদ।
এ ব্যাপারে শালিসের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মেম্বার জানান, ওই শালিসে মনিরের ৩ লাখ টাকা জরিমানা করে বিচারকগণ। এরপর থেকে আমরা যারা শালিসে ছিলাম আমাদেরকে আসামী করে এই পর্যন্ত ৩টি হয়রানি মূলক মামলা করে এবং আরো মামলা দেওয়ার হুমকি দেয়। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন। তাই তিনি মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান। অভিযুক্ত মনির হোসেন বলেন, যেটা সঠিক সেটাই আমি করেছি।
এ বিষয়ে গতকাল বুধবার এস আই সালাদ্দিন জানান, মামলার তদন্ত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!