দুই স্ত্রীর ছেলেদের মারামারি থামাতে গিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরে পারিবারিক কলহ থামাতে গিয়ে দুই স্ত্রীর ছেলেদের মারধরের স্বীকার হয়ে রাজ্জাক মোল্লা নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সিটি করপোরেশনের হায়দরাবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের লাশ টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা ওই এলাকার জমির উদ্দিন মোল্লার ছেলে।

নিহতের স্বজনরা জানান, রাজ্জাক মোল্লার প্রথম স্ত্রীর ছেলে বিল্লাল মোল্লা ও খোকন মোল্লা এবং দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরের সুমন মোল্লা ও স্বপন মোল্লাসহ তাদের পরিবারে বিবাদ চলে আসছিল। শুক্রবার তাদের কলহ থামাতে গিয়ে মারধরের স্বীকার হয়ে তিনি মারা যান।

জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক আতিকুর রহমান জানান, সিটি করপোরেশনের হায়দরাবাদ এলাকায় নিজ বাড়িতে দুই স্ত্রী ও ছেলেমেয়ে নিয়ে বাস করে আসছিলেন রাজ্জাক মোল্লা। দীর্ঘদিন ধরে দুই সংসারের ছেলে মেয়েদের মধ্যে কলহ চলছিল। শুক্রবার বিকালে প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে মেয়েদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় তাদের মারামারি থামোতে গেলে রাজ্জাক মোল্লাও মারধরের শিকার হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে টঙ্গী সরকারি হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে দ্বিতীয় স্ত্রীর সন্তান স্বপন মোল্লা ও সুমন মোল্লা পলাতক রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.