দামুড়হুদায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কাদিপুর গ্রামে আয়না খাতুন (৩০) নামে স্বামী পরিত্যক্তা দুই সন্তানের জননী ঘরে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। আয়না খাতুন কাদিপুর গ্রামের আবুবকর ওরফে বক্কার কন্যা। রোববার সকাল ৮টার দিকে সে একই গ্রামের তার বোনাই বাড়ীর বসত ঘরে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। প্রত্যক্ষদশী ও পুলিশ জানায়, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কাদিপুর গ্রামের আবুবকরের ওরফে বক্কার কন্যা স্বামী পরিত্যাক্তা দুই সন্তানের জননী আয়না খাতুন কে গত শুক্রবার তার পিতা বিয়ের জন্য বলে। আয়না খাতুন বিয়েতে রাজীনা হওয়ায় তার পিতা তাকে বকা বকি করে। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে ঐ দিনই তার বোনাই বাড়ী একই গ্রামের গাং পাড়ার ফুলুর বাড়ী চলে যায়। এর পর আজ রোববার সকালে সে গার্মেন্টেস এ কাজ করার জন্য ঢাকায় যেতে গেলে তার পরিবারের লোকজন বাধা সৃষ্টি করে। এতে আয়না খাতুন ক্ষুব্ধ হয়ে বোনাই বাড়ীর বসত ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এসময় বাড়ীর লোক জন টের পেয়ে ঘরের জানালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে মৃত্যু প্রায় অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে দর্শনা ক্লিনিকে নেওয়ার পথে সকাল ৮টার দিকে আয়না খাতুন মারা যায়।
দামুড়হুদা মডেল থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ ফকরুল আলম খাঁন, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!