তুরাগ তীরে দাওয়াতের অনুশীলনে দুই লাখ মুসল্লি

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমা। ফজরের নামাজের পর থেকে বাংলাদেশের মাওলানা রবিউল ইসলামের আমবয়ানের মধ্য দিয়ে জোড় ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে জোড় ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। আগামী ১২ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমা।

ইজতেমার আয়োজকরা জানান, আগামী এক বছর তাবলিগ জামায়াতকে মানুষের কতটা কাছাকাছি নিয়ে যাওয়া যায়, সে উপায় খুঁজে বের করা এবং আগামী ১২ জানুয়ারি থেকে অনুষ্ঠিতব্য দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমার কর্মসূচি নির্ধারণ করাই জোড় ইজতেমার উদ্দেশ্য। দেশ-বিদেশের তাবলিগ জামাতের তিন চিল্লা সম্পন্নকারী মুসল্লি-সাথীরা এ জোড় ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন। এখানে ইমান-আমলসহ ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ ও তালিম দেয়া হয়। পরে মোনাজাত শেষে জোড় ইজতেমায় আগত মুসুল্লিরা ইজতেমার দাওয়াতি কাজে বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়বেন। দাওয়াতি কাজ শেষে তারা জানুয়ারি মাসে আবার টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দেবেন।
বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি গিয়াস উদ্দিন জানান, বিশ্ব ইজতেমা সুন্দর ও সফলভাবে সম্পন্ন করতে প্রতি বছর টঙ্গীর তুরাগ তীরে ইজতেমার ময়দানে পাঁচ দিনের জন্য জোড় ইজতেমার আয়োজন করা হয়। এবার দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রায় দুই লাখ মুসুল্লি এতে অংশ নিয়েছেন। ফজরের নামাজের পর বয়ান করেন মাওলানা রবিউল ইসলাম। কালেমা, নামাজ, ইমান-আমল, জান্নাত-জাহান্নাম ও তাবলিগের উদ্দেশ্যে মেহনত সম্পর্কে দিনব্যাপী মুরব্বিরা বয়ান করবেন। দুপুরে জুমার নামাজে ইজতেমার মুসুল্লি ছাড়াও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দারা অংশ নেবেন।

তবে গত কয়েকদিনে হালকা বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়া মুসুল্লিদের সমস্যা সৃষ্টি করলেও দীনের মেহনতের খাতিরে তাদের এ সমস্যা বড় নয় জানিয়ে মাওলানা গিয়াস উদ্দিন বলেন, জোড় ইজতেমায় নিরাপত্তা ও সার্বিক পরিবেশ ভালো রয়েছে। মুসুল্লিদের থাকা, খাওয়া ও পয়ঃনিষ্কাশন এবং পানির পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জোড় ইজতেমা শেষে আগামী ১২ জানুয়ারি দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হবে। আর চারদিন বিরতির পর ১৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা।
টঙ্গী থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার জানান, টঙ্গীর তুরাগ তীরে জোড় ইজতেমা উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এলক্ষ্যে পাঁচ শতাধিক পুলিশ সদস্য ইজতেমা মাঠে কাজ করছে। প্রবেশ পথে তল্লাশি ছাড়াও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!