জুয়ায় বাধা, নারীর স্তন কামড়ে ক্ষতবিক্ষত

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে জুয়া খেলায় বাধা দেয়ায় এক নারীকে কামড়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে আর যার বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই ব্যক্তি পালিয়ে গেছেন।

সোমবার উপজেলার কাদিহাট মহারাজা এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি।

এলাকাবাসী জানায়, কাশিপুর ইউনিয়নের কাদিহাট মহারাজা এলাকায় স্থানীয় বাসিন্দা মন্টু দীর্ঘদিন ধরে জুয়ার আসর বসিয়ে আসছিলেন। এলাকাবাসীর নিষেধ একাধিকবার উপেক্ষা করেছেন তিনি। সোমবার মন্টু তার দলবল নিয়ে আবারও জুয়ার আসর শুরু করেন।

এ সময় স্থানীয় এক নারী বাধা দিলে মন্টু ও তার স্ত্রী উত্তেজিত হয়ে ওই গৃহবধূর বাড়িতে চড়াও হয়। এক পর্যায়ে মন্টু ওই গৃহবধূর স্তনে কামড় দেন। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে জুয়ারি মন্টু ও তার স্ত্রী ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে আহত ওই নারীর স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে বালিয়াডাঙ্গী হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আবুল কাশেম জানান, গৃহবধূর স্তনের অবস্থা গুরুতর। জীবজন্তুর মতোই মানুষের কামড় খুবই ক্ষতিকারক।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য সহিদুল ইসলাম বলেন, ‘জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে একটি ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়ভাবে বিষয়টির আপস-মীমাংসা করা হবে।’

কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব বলেন, ‘যে ঘটনাটি ঘটেছে তা খুবই নিন্দনীয়। বিষয়টি থানায় জানাতে ভুক্তভোগী গৃহবধূকে বলা হয়েছে।’

রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান জানান, গৃহবধূকে কামড়ে আহত হওয়ার বিষয়ে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.