চৌদ্দগ্রামে নিখোঁজের ২ দিন পর পুকুরে পাওয়া গেল তাফসিরের লাশ, একমাত্র পুত্রের শোকে পাগলপ্রায় পরিবারের সদস্যরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চৌদ্দগ্রামে নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন পর শুক্রবার ভোরে (০৮ ডিসেম্বর) বাড়ীর পাশ্ববর্তী একটি পুকুরে তাফসির মিয়াজীর (৭) লাশ পাওয়া গেছে। তাফসির গুনবতী ইউনিয়নের ফুলের নাওড়ী গ্রামের মিয়াজী বাড়ির কুয়েত প্রবাসী আফসার মিয়াজীর সন্তান। তবে এ ঘটনায় এখনো কাউকে সন্দেহ করছেন না বলে জানান পরিবারের সদস্যরা। শুক্রবার দুপুর ৩.৩০ ঘটিকায় জানাযার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।
এদিকে একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে মা মোহছেনা শিল্পী ও পরিবারের সদস্যদের কান্না যেন আর থামছে না। জানা যায়, তাফসিরের ৬ মাস বয়সি আর একটি বোন রয়েছে। সদা হাস্যোজ্জ্বল তাফসির বুধবার দুপুরে খাওয়া শেষে খেলতে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরেনি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত আত্মীয় স্বজনসহ সম্ভাব্য সকলস্থানে খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় তাফসিরের নানা শামছুল হক বাদি হয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (নং-৩০৯) করেছিলেন। নিহত তাফসিরের খালা শামিমা বেগম জানান, শুক্রবার ভোরে হঠ্যাৎ করেই বাড়ীর পাশ্ববর্তী পুকুরে তাফসিরের লাশ পাওয়া যায়। উদ্ধারকৃত লাশে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলেও তিনি জানান।
চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই সুজন জানান, উদ্ধার হওয়া লাশে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নাই। এ ঘটনায় পরিবারেরও কোন অভিযোগ নাই। তাই অপমৃত্যু মামলা দায়ের শেষে পরিবারকে লাশ দাফনের অনুমতি প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.