1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
খাসোগি ইস্যুতে ৭৬ সৌদি নাগরিকের ভিসা নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের ঢাকা-ওয়াশিংটন জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করবে ‘প্রবীণদের জীবনমান উন্নয়নে সামাজিক নিরাপত্তার পরিধি বাড়ানো হয়েছে’ জিয়ার অবদান অস্বীকার করা মানে স্বাধীনতাকেই অস্বীকার করা….মির্জা ফখরুল বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে বড় পতন, ৮ মাসে সর্বনিম্ন বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছে প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে পরিসংখ্যানের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ…. রাষ্ট্রপতি ঢাকা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে শেয়ারবাজার কারসাজির বিরুদ্ধে অকুতোভয় যোদ্ধা ছিলেন তিনি সাবেক ডেপুটি গভর্নর ইব্রাহিম খালেদ আর নেই

চৌদ্দগ্রামে দাদা কর্তৃক নাতনি ধর্ষণ

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৯ আগস্ট, ২০১৭
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি : তুফান কান্ডসহ সারাদেশে একের পর এক ধর্ষনের ধারাবাহিকতার সর্বশেষ সংযোজন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দাদা কর্তৃক নাতি ধর্ষনের ঘটনা। স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় মাত্র ভর্তি হওয়া সামিয়া (ছদ্মনাম) নামের মাত্র ৫ বছর বয়সের অপরিপক্ক মেয়েটি ধর্ষনের স্বীকার হয়ে বর্তমানে হাসপাতালের ভর্তি। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গুনবতী ইউনিয়নের কর্তাম গ্রামে। পাশবিক এ ঘটানার স্বীকার হয়ে বাদীদের অব্যাহত হুমকি ও স্থানীয় প্রভাবশালীদের চাপে থানায় মামলা ও স্বাভাবিক চিকিৎসা থেকেও বঞ্চিত হয়েছে শিশুটি। অবশেষে পরিবারটি আইনের আশ্রয় নিয়ে ৮ আগষ্ট গতকাল মঙ্গলবার কুমিল্লার বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে অভিযুক্ত ধর্ষক আব্দুল মালেকসহ (৬০) তিনজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন ভিকটিমের মাতা সুলতানা বিলকিস ববিতা। মামলার অপর আসামীরা হলো; মোঃ মাসুদ (২৯) ও মোঃ রাজিব (২৮)। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি শুরু থেকেই জানার পরেও আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় তা প্রকাশে ভয়ে ছিলেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গুনবতী ইউনিয়নের কর্তাম গ্রামের প্রবাসী রাজ্জক বেলালের মেয়ে ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ছাত্রী ভিকটিম সামিয়া (ছদ্মনাম) ও ১নং আসামী আব্দুল মালেক (চাচাত দাদা) সম্পর্কে দাদা-নাতিন। ঘটনার দিন গত ২৬ জুলাই বুধবার সন্ধায় ভিকটিমকে কৌশলে নিজ ঘরে নিয়ে যায় দাদা আব্দুল মালেক। বেশ কিছুক্ষন পর ভিকটিম সামিয়ার চিৎকার শুনে ঐ ঘরের দিকে যায় সামিয়ার মা। এ সময় সামিয়া কাঁদকে কাঁদতে ঘর থেকে বেরিয়ে এসে মাকে জড়িয়ে ধরে। সুলতানা বিলকিস মেয়েকে কান্নার কারণ জিজ্ঞেস করলে সে জানায়, দাদা আব্দুল মালেক জোরপূর্বক তার সাথে যৌন সম্পর্ক করেছে। তাৎক্ষনিক মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গুনবতী বাজারে নিয়ে যায়। স্থানীয় ডাক্তার বেশ কয়েকদিন চিকিৎসা প্রদান করে এবং ৭টি ইনজেকশান প্রদান করেন। কিন্তু ভিকটিম ছামিয়ার পরিস্থিতির পরিবর্তন না দেখে ডাক্তার তাকে কুমিল্লায় প্রেরণের পরামর্শ দিলে পরিবার তাকে গত ৫ আগষ্টে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়।
ভিকটিমের মা সুলতানা বিবি ববিতা জানান, ঘটনাটি নিজেদের মধ্যে হওয়ায় ১নং আসামীর ছেলেরা অর্থ্যা ২ ও ৩নং আসামী বিভিন্নভাবে আপোষ মিমাংশা করে দিবে বলে আমাদের মামলা প্রদান থেকে বিরত রাখে। এমনকি মেয়ের শারিরীক অবস্থার অবনতি দেখে তারা চৌদ্দগ্রামের কিংবা কুমিল্লার কোন সরকারী হাসপাতালে না নিয়ে ফেণীর যে কোন বে-সরকারী হাসপাতালে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। সর্বশেষ গত ৪ আগষ্ট তারা এবং স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী মিমাংশা করে দিবে বলে আমার নিকট থেকে মেয়ের চিকিৎসাপত্রের কাগজের ফটোকপি নিয়ে যায়। তারা এ সময় বলে, কাগজপত্র যেহেতু আছে সেহেতু ৫-৬ মাস পরেও মিমাংশা করা যাবে। এ সময় তারা আমাকে আইনের আশ্রয় না নিতে এবং বিয়ষটি কাউকে না জানাতে চাপ সৃষ্টি করে। স্বামীর বিদেশে থাকায় আমার একাকিত্বের সুযোগে তারা আমাকে আইনের আশ্রয় এমনকি চিকিৎসা গ্রহণ থেকেও বঞ্চিত রাখে মেয়েটিকে। ভিকটিমের মাতা ববিতা আরও জানান, আইনের আশ্রয় নেওয়ার খবর পেয়ে আসামীরা বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করছে। বর্তমানে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে যাওয়া নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান তিনি।
চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল ফয়সাল জানান, ধর্ষনের ঘটনাটি কুমিল্লা কোতয়ালী থানা সূত্রে জানার পরে আমি নিজ থেকে মেয়ের মায়ের সাথে যোগাযোগ করি এবং হাসপাতালে পুলিশ পাঠাই। কিন্তু মেয়ের পরিবার থানায় আসবে বলেও কোন ধরনের অভিযোগ কিংবা মামলা দায়েরের জন্য আসেন নাই। আজকেই শুনলাম আদালতের মাধ্যমে মামলা দায়ের হয়েছে। আদালতের কপি হাতে পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!