1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
করোনায় বিশ্ব লণ্ডভণ্ড আত্মহত্যার হার বেড়েছে জাপানে বইমেলা হবে তারিখ চূড়ান্ত করবেন…. প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিবাদের শেকর মূলোৎপাটন করা হবে…আইজিপি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নের দাঁড়াচৌ নূরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার তাফসিরুল কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস শুরু ১ এপ্রিল সংসদ অধিবেশন উপলক্ষে ডিএমপির নিষেধাজ্ঞা ফিলিস্তিনে ১৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নির্বাচন সবার আগে সম্মুখ যোদ্ধাদের ভ্যাকসিন দেয়া হবে….স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদ অধিবেশনকালে আশপাশের এলাকায় যা নিষিদ্ধ

গ্যাস্ট্রিক দূর করার ৭টি উপায়

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর, ২০১৭
  • ২১ বার পড়া হয়েছে

গ্যাস্ট্রিক আলসার রোগটির সাথে আমরা সবাই কমবেশি পরিচিত। ডাক্তারি ভাষায় এটাকে পেপটিক আলসার ডিজিজ কিংবা গ্যাস্ট্রিক আলসার ডিজিজ বলা হয়। তবে সাধারন মানুষের কাছে এই রোগটি গ্যাস্ট্রিকের ব্যাথা, গ্যাসের ব্যাথা, পেটের আলসার, খাদ্যনালীর ঘা ইত্যাদি নামে পরিচিত। ডাক্তারের কাছে এসে রোগীরা সাধারণত এই নামেই সমস্যা উপস্থাপন করে। অগোছালো জীবন-যাপন, অনিয়মিত খাবার গ্রহণ, খাবার বাছাইয়ে অসতর্কতা ও অজ্ঞতা এ রোগের পিছনে বড় কারন।

গ্যাস্ট্রিক আলসার রোগের লক্ষণ

১. বুক ও পেটের উপরের অংশে ব্যাথা (পাকস্থলীর আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যাথা কমে যায়, কিন্তু অন্ত্রের আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যাথা সাধারণত বাড়ে),

২. বুক জ্বালাপোড়া করা,

৩. টক বা তিক্ত স্বাদের ঢেকুর তোলা,

৪. মাত্রাতিরিক্ত হেচকি ওঠা,

৫. বুকের পেছনের অংশে বা মেরুদণ্ডে ব্যথা,

৬. পেটের উপরের অংশে গরম অনুভূত যাওয়া,

৭. ক্ষুধামন্দা,

৮. বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া।
প্রতিকারের উপায়

ডাক্তারি পরামর্শ মোতাবেক ওষুধ সেবন ও খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন এনে সহজেই এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন প্রতিকারের কয়েকটি সহজ উপায় জেনে নেই-
১. ভাজাপোড়া ও মশলাযুক্ত খাবার কম খাওয়া।
২. এলকোহল ও ক্যাফেইন যুক্ত খাবার (যেমন: চা, কফি ইত্যাদি) বর্জন করা।
৩. ভাতের সাথে অতিরিক্ত লবন (কাঁচা লবন) না খাওয়া। কারন খাবার লবনে যে অতিরিক্ত সোডিয়াম থাকে তা আলসার তৈরিতে সহায়তা করে।
৪. সামুদ্রিক তৈলাক্ত মাছ বেশি করে খাওয়া। কারন এ ধরনের মাছে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড থাকে যা প্রোস্টাগ্লাণ্ডিন তৈরিতে সাহায্য করে। এই প্রোস্টাগ্লাণ্ডিন আলসার শুকাতে সাহায্য করে।
৫. এসপিরিন ও ব্যাথানাশক ওষুধ এড়িয়ে চলা। এগুলো প্রোস্টাগ্লাণ্ডিনকে বাধা দেয়। ফলে নতুন করে আলসার তৈরি হয়।
৬. ভিটামিন-এ, সি ও ই যুক্ত ফল-মূল ও শাক-সবজি বেশি পরিমানে খাওয়া। এ সকল ভিটামিন আলসারের ঘা শুকাতে
সাহায্য করে।
৭. প্রচুর পরিমাণ পানি পান করা। এতে অতিরিক্ত এসিড নিষ্ক্রিয় (নিউট্রালাইজ) হয়ে যাওয়ায় আলসারের ঝুঁকি কমে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!