গোপালগঞ্জে সেফটি ট্যাংকি পরিস্কার করার সময় ৩ শ্রমিকের মৃত্য

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে নির্মাণাধীন ভবনের সেফটি ট্যাংকি পরিস্কার করার সময় ৩ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে শহরের থানাপাড়া এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহতরা হলেন, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের হারেজের ছেলে নূর ইসলাম (৩০), একই গ্রামের আসাদ মুন্সির ছেলে জাহিদুর মুন্সি (১৮) ও সুমন।
গোপালগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নুরুল আমিন শেখ বিপ্লব জানান, শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে থানাপাড়ার ব্যবসায়ী হায়দার মুন্সির নির্মাণাধীন বাড়ির বহুতল ভবনের আন্ডার গ্রাউন্ডের নিচে সেফটি ট্যাংকি পরিস্কার করতে ৩ শ্রমিক নামেন। এক পর্যায়ে তারা অক্সিজেন ফেল করে সেখানে মারা যায় বলে ধারনা করা হচ্ছে।
শ্রমিক গৌতম মজুমদার (৩০) জানান, সকাল ১০ টার দিকে সেফটি ট্যাংকিতে নেমে আমাদের ওই ৩ সহকর্মী কাজ শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা উঠে না আসলে সন্দেহ হয়। অন্য সহকর্মীরা নিচে নেমে তাদের ছটফট করতে দেখেছে। পরে খবর পেয়ে আমিও ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাদের ছটফট করতে দেখি। তাদেরকে উদ্ধারের জন্য বাড়ির মালিকসহ স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন। কিন্তু তারা ট্যাংরি মধ্যে থাকায় তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।
গোপালগঞ্জ সদর থানার এস আই তন্ময় সাহা ওই ৩ শ্রমিকের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে বলেন, গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি দল দুপুর ১২টা থেকে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।
গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার নিয়ামুল ইসলাম বলেন, বিল্ডিং থেকে শ্রমিকদের উদ্ধারের কাজের আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হয়েছে যার কারনে দ্রুত নিহত শ্রমিকদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তবে কি কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে তা তিনি প্রাথমিক ভাবে জানাতে পারেন নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.