খুলনা মহানগরীর জলাধার সংরক্ষণ, জলাবদ্ধতা নিরসন এবং অভ্যন্তরীণ খালসমূহের সংস্কারের উদ্যোগ

খুলনা সংবাদদাতা : নেদারল্যান্ডস এন্টারপ্রাইজ এজেন্সীর আর্থিক সহায়তায় “ওয়াটার এ্যাজ লেভারেজ ফর রিজিলিয়েন্ট সিটিস এশিয়া” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় খুলনা মহানগরী এলাকার জলাধার সংরক্ষণ ও জলাবদ্ধতা নিরসন এবং অভ্যন্তরীণ খালসমূহের সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।
এজেন্সীর টীম লিডার ডেনিস ভ্যান পিপেন ও ইন্টারন্যাশনাল ওয়াটার এফেয়ারস-এর সিনিয়র প্রোগ্রাম এ্যাডভাইজার সান্দ্রা স্কুক আজ বৃহস্পতিবার সকালে নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে সিটি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান সহ কেসিসি’র কর্মকর্তাদের সাথে প্রকল্পের কর্মপরিকল্পনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় এ কথা জানান। সভায় এজেন্সীর টীম লিডার পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে প্রকল্পের কর্ম-পরিকল্পনা তুলে ধরেন এবং প্রকল্প বাস্তবায়নে কারিগরি ও আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করা হবে মর্মে অবহিত করেন। উল্লেখ্য, এশিয়ার ৩টি দেশ ভারত, বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ায় এ প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে।
সভায় সিটি মেয়র আগত প্রতিনিধি দলের সদস্যদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে পানির স্তর নেমে যাওয়ার পানির তীব্র সংকট দেখা দিচ্ছে। পাশাপাশি উদ্বাস্তু জনগোষ্ঠী কাজের সন্ধানে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় আশ্রয় গ্রহণ করায় জনসংখ্যাও ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাদের আবাসস্থল নির্মাণের ফলে পুকুরসহ প্রাকৃতিক জলাধারসমূহ ভরাট হয়ে পানি নিস্কাসন কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। জলাধারগুলি সংরক্ষণসহ জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রকল্পটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে সিটি মেয়র আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা, সচিব মোঃ ইকবাল হোসেন, প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ নাজমুল ইসলাম, চীফ কঞ্জারভেন্সী অফিসার প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল আজিজ, নির্বাহী প্রকৌশলী লিয়াকত আলী খান, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, আর্কিটেক্ট রেজবিনা খানম, জনসংযোগ কর্মকর্তা সরদার আবু তাহের, এস্টেট অফিসার নুরুজ্জামান তালুকদার প্রমুখ মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় শেষে প্রতিনিধি দল প্রকল্পের স্থান নির্ধারণকল্পে মহানগরীর বিভিন্ন স্থান সরেজমিন পরিদর্শন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!