কোটা সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা : সরকারি চাকরিতে কোটা প্রথা সংস্কারের দাবিতে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়ায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ-সমাবেশে যোগ দেন।
পরে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে ঘোনাপাড়ায় গিয়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাঁশ, কাঠ ও ইট দিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। এ সময় সেখানে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। এদিকে মহাসড়ক অবরোধ করার ফলে দুই পাশেই বেশ কিছু যানবাহন আটকা পড়েছে। যানবাহন না চলায় চরম দুর্ভোগের শিকার হন যাত্রী সাধারণ।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থী আনিচুর রহমান, লোকমান শেখ ও ফজলে রাব্বী বলেন, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে অটল রয়েছি। কেন্দ্রীয় থেকে আন্দোলন প্রত্যাহারের ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব।
এদিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান খান ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ঘোনাপাড়ায় গিয়েছিলেন সেখানে গিয়ে তারা শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেছেন।
পরে বেলা ২টার দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ঘোনাপাড়ায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ তুলে নেয়।
অপর দিকে আন্দোলন চলাকালিন সময়ে গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলার প্রফেসার ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টায় ঘটনাস্থল থেকে ২ সন্ত্রাসীকে ধরে গন পিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার দুপুর দেড়টায় ঘোনাপাড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা।
জানা গেছে বুধবার সকালে শিক্ষার্থীরা কোটা দাবীতে ঢাকা খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়া মোড়ে বিক্ষোভ করছিলো। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলার প্রফেসার ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিন ছাত্রদের আশ্বস্ত করতে ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে ২ জন সন্ত্রাসী ভিসি সাহেবকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরি দিয়ে আঘাতের চেস্টা করে। এ সময় অন্যান্য ছাত্ররা ওই ২ জন সন্ত্রাসী কে ধরে গনপিটুনী দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!