কুমিল্লা মেঘনার ট্রলার চালক আমির হত্যাকান্ডে গ্রেফতার ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কুমিল্লার মেঘনার চালিভাঙ্গায় সৎ ভাইয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর ঘটনায় নিজেই ফেঁসে গেলে দেলোয়ার হোসেন নামের এক ব্যাক্তি। গত বুধবার দেলোয়ার হোসেন তার অপর সহযোগী মানিকসহ হত্যার বিষয়ে কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে । পুলিশ দেলোয়ারসহ ৫ জনকে আটক করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা পুলিশ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

গত ১৭ অক্টোবর কুমিল্লা জেলার মেঘনা উপজেলার চালিভাঙ্গা গ্রামের পাগাড়িপাড়া খালের পানিতে ভাসমান অবস্থায় দেলোয়ারের সৎ ভাই ট্রলার চালক আমির হোসেনের ক্ষতবিক্ষত লাশ পুলিশ উদ্ধার করে। পরে পুলিশি তদন্তে এ হত্যা কান্ডের সাথে দেলোয়ার হোসেন জড়িত আছে বলে পুলিশ তথ্য পায়। তথ্য অনুসারে জানা যায়, চালিভাঙ্গা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির গ্রুপকে ফাঁসানোর জন্য দেলোয়ার হোসেন তার সঙ্গীদের নিয়ে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বসে সিদ্ধান্ত নেয়। পরে ১৫ অক্টোরব সৎ ভাই আমীর হোসেনকে সোনারগাঁওয়ে দেখা করার বলে ডেকে নিয়ে হত্যা করে। পরে লাশ চালিভাঙ্গার পাহাড়িপাড়ার খালে এনে ফেলে দেয়।

এ ব্যাপারে ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহতের স্ত্রী মোর্শেদা বেগম বাদী হয়ে মেঘনা থানায় মামলা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.