কুমিল্লা নাঙ্গলকোটে বাল্য বিবাহ পন্ড

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) হস্তক্ষেপে সোমবার মোসা: ফাতেমা আক্তার (১৩) ও বক্সগঞ্জ আমিল মাদ্রসার ৭ম শ্রেনীর এক ছাত্রীর বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়েছে। সে উপজেলার বক্সগঞ্জ ইউপির কোকালি গ্রামের প্রবাসি ইমাম হোসেনের মেয়ে।
জানা যায়, কোকালি গ্রাম থেকে দু’জন ফাতেমা আক্তারের খালাত ভাই পরিচয় দিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট এসে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তাৎক্ষনিক ইউএনও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন ওই এলাকায় গিয়ে সঠিক তথ্য নিয়ে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য। পরে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা লায়লা আনজুমান বানু ওই গ্রামে গিয়ে বিবাহটি বন্ধ করে, এবং পরিবারের কাছ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দিবেনা বলে তাদের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দাউদ হোসেন চৌধুরী জানান, অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে সঠিক তথ্য নিয়ে বিবাহটি বন্ধ করা হয়। এ ছাড়াও পরবর্তীতে যেন গোপনে বিয়ে দিতে না পারে তার জন্য অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.