1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৩০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রেল যোগাযোগ আরো সম্প্রসারিত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার…প্রধানমন্ত্রী উন্নয়ন অগ্রযাত্রা চলমান করোনার মধ্যেও সব খাতে …এলজিআরডি মন্ত্রী গৃহবধু তামান্না হত্যার মূল হোতা স্বামী আল মামুন এখনো পুলিশের ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছে ফেসবুকে অপপ্রচারের জিডি করায়, কুমিল্লায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা এবার চীনে করোনার পর নরোভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন নিয়ে ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী বিতর্কের সৃষ্টি করছে….কাদের সিলেট নগরীর মাছিমপুর কলোনিতে অগ্নিকাণ্ড, কোটি টাকার ক্ষতি জাফলংয়ের প্রত্যেয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ ও বিদায়ী সংবর্ধনা ভারতের যুদ্ধবিমান আরব সাগরে ভেঙে পড়লো দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর ৫ হাজার ৮৫০ মিটার বসল ৩৯তম স্প্যান

এবার পদচ্যুত ট্রাম্পের গণমাধ্যম প্রধান স্কারামুচি

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১ আগস্ট, ২০১৭
  • ১৫ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : হোয়াইট হাউজের যোগাযোগ পরিচালকের দায়িত্ব পাওয়ার মাত্র ১০ দিনেরও কম সময়ের মধ্যে অ্যান্থনি স্কারামুচিকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।সাবেক আর্থিক ব্যবস্থাপক স্কারামুচি গত শুক্রবার কাজে যোগ দেয়ার পর একজন সাংবাদিককে টেলিফোনে তার সহকর্মীদের সম্পর্কে অশ্লীল ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন। স্কারামুচির নিয়োগকে কেন্দ্র করে হোয়াইট হাউজের চিফ অফ স্টাফ রায়ান্স প্রিবাস এবং মুখপাত্র শন স্পাইসার দুইজনই পদত্যাগ করেন।মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, ট্রাম্পের নতুন চিফ অফ স্টাফ জন কেলি স্কারামুচিকে সরিয়ে দেয়ার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।হোয়াইট হাউজ থেকে মাত্র তিনটি বাক্যে একটি বিবৃতি দেয়া হয়েছে যে “অ্যান্থনি স্কারামুচি যোগাযোগ পরিচালক পদ থেকে সরে যাচ্ছেন। স্কারামুচি মনে করেছেন চিফ অফ স্টাফ জন কেলিকে তার নিজের টিম গঠনের সুযোগ দেয়া উচিত। আমরা তার জন্য শুভকামনা জানাচ্ছি”।এদিকে মাত্র দুইদিন আগে রাইন্স প্রিবাসকে সরিয়ে চিফ অব স্টাফ পদে জন কেলিকে নিয়োগ দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। গতকাল সোমবার দায়িত্ব নেন কেলি। দায়িত্ব নিয়েই স্কারামুচিকে সরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।এদিকে প্রিবাসের অব্যাহতির জন্য স্কারামুচিই দায়ি বলে মনে করছে মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো। কারণ স্কারামুচির নিয়োগের পর থেকেই চাপে ছিলেন প্রিবাস। গণমাধ্যমের কাছে গোপন তথ্য ফাঁস করছেন, প্রিবাসের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ রয়েছে। এরকম অভিযোগ নিয়ে একটি টুইটও করেছিলেন স্কারামুচি। যদিও অনতিবিলম্বে তা মুছে ফেলেন তিনি। এরকম প্রেক্ষাপটেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে স্বয়ং ট্রাম্প টুইট করে প্রিবাসের বদলে জন কেলির নাম ঘোষণা করেছিলেন।এদিকে মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, স্কারামুচির হোয়াইট হাউসে নিয়োগ নিয়ে তার সংসারেও চলছিল অশান্তি। স্কারামুচির স্ত্রী দ্রেইদ্রে বল মারাত্মক ট্রাম্প বিরোধী। আর তাই ট্রাম্পের সঙ্গে স্বামীর এতো ঘনিষ্ঠতা মেনে নিতে পারছিলেন না তিনি। আদালতে বিয়ে বিচ্ছেদের আবেদনও করে বসেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!