1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০২:৪০ অপরাহ্ন

ইজিবাইক আর রিক্সার যানজটে নাকাল খুলনাবাসী

রিপোর্টারের নাম :
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
  • ৮ বার পড়া হয়েছে

খুলনা প্রতিনিধি : এক সময়কার যানজট মুক্ত মহানগরী খুলনা এখন বিড়ম্বনার মডেল। যানজট এখন নাগরিক জীবনের গলার কাটা। ইজিবাইকের বেপরোয়া চলাচল নগর জীবনে বিষফোড়ার মত। নগরীর গুরুত্বপূর্ন মোড় ও এলাকায় যানজটে নাকাল নগরবাসী। অদক্ষ চালক আর অতিরিক্ত ইজি বাইকের কারণে ট্রাফিক ব্যবস্থাকে রীতিমত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। গত ১০ বছরে রিক্সা যেভাবে বেড়ে যানযটের সৃষ্টি করেছে তার চেয়ে গত ২ বছরে অটো রিক্সায় সমস্যা আরো প্রকট করে তুলেছে। ইজিবাইক আর রিক্সার নগরী খুলনায় গত কয়েক বছর যাবৎ যানজট তীব্র আকার ধারন করায় তা নিরসনের জন্য তিনটি স্থানে ওভার ব্রীজ নির্মান করার জন্য গৃহীত প্রকল্পটি দীর্ঘ প্রায় ১১ বছরেও আলোর মুখ দেখেনি। মন্ত্রণালয়ের আপত্তির মুখে দু’টি বাদ দিয়ে একটি ওভার ব্রীজ নির্মান করার অনুমোদন পাওয়া গেলেও শেষ পর্যন্ত তাও নির্মান করা সম্ভব হয়নি। বঞ্চিত খুলনাবাসীর যানজট কিন্তু পিছু ছাড়েনি। নগরীর নিরালার মোড়, গল্লামারীর, ময়লাপোতার মোড়, ফুলমার্কেটর মোড়, সাতরাস্তার মোড়, পিকচ্যার প্যালেস, ডাকবাংলার মোড়, শিববাড়ী মোড়, দৌলতপুর, সাতরাস্তার মোড়, শান্তিধামের মোড়, পিটিআইর মোড় সহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ন স্থানে ওভারব্রীজ একান্ত প্রয়োজন। সব সরকারের আমলে খুলনাবাসী এ সকল ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। তাই বর্তমান সরকারের কাছে এ অঞ্চলের মানুষের চাওয়া পাওয়া অনেক। খুলনা নাগরিক সমাজের প্রশ্ন কোন কারনে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় মাত্র দু’টি ওভারব্রীজের নির্মান প্রকল্প বাদ দিলো। তারপরও শেষ আশা ভরসা একটি ওভার ব্রীজের অনুমোদন দেয়া হয়। কিন্তু কোন অদৃশ্য কালো হাতের ইশারায় অনুমোদন পাওয়া ব্রীজটি নির্মান করা সম্ভব হয়নি। অনেক তালবাহনা পাশ কাটিয়ে খুলনাবাসীর আন্দোলনের মুখে একটি ওভার ব্রীজের অনুমোদন হয়। অথচ তাও এখন আলোরমুখ দেখলোনা।
সূত্রমতে, ২০০৫ সালের দিকে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে নগরীর যানজট নিরসনের জন্য একটি প্রকল্প তৈরীর উদ্যোগ গ্রহন করা হয়। কেসিসির পক্ষ থেকে ২ কোটি ১৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার একটি প্রকল্প তৈরী করে মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়। প্রকল্পের মধ্যে ছিল নগরীর ডাকবাংলা, নিউমার্কেট ও দৌলতপুর মোড়ে পৃথক তিনটি ওভারব্রীজ নির্মান। এছাড়া একই প্রকল্পে নগরীর তিনটি স্থানে রিক্সা স্ট্যান্ড নির্মান ও ৫টি অটো ইলেকট্রিক ট্রাফিক সিগনাল স্থাপনসহ সড়ক ডিভাইডার নির্মান অন্তর্ভূক্ত ছিল। জানা যায়, প্রকল্পটি তৈরী করে মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়। কিন্তু তিনটি ওভার ব্রীজের মধ্যে শুধুমাত্র ডাকবাংলারটি অনুমোদন দেয়া হয়। নিউমার্কেট ও দৌলতপুর এই দু’টি বাদ দেয়া হয়। ডাকবাংলার ওভারব্রীজটি শেষ পর্যন্ত নির্মান করা হয়নি। সূত্র বলছে, ডাকবাংলার ওভার ব্রীজটি নির্মান করার জন্য প্রয়োজনীয় জায়গা পাওয়া যায়নি বলে যুক্তি দাড় করানো হয়েছে। সরকার জনস্বার্থে যে কোন স্থানে সৃষ্ট সমস্যার সমাধান করতে পারে। কিন্তু পর্যাপ্ত জায়গার অভাবের খোড়া অজুহাত দেখিয়ে প্রকল্পটি হিমাগারে পাঠানোকে নাগরিক নেতৃবৃন্দ কোনভাবেই মেনে নিতে পারছে না। তাছাড়া নগরীর গুরুত্বপূর্ন নিউমার্কেট ও দৌলতপুর মোড়ে প্রস্তাবিত দু’টি ওভার ব্রীজ মন্ত্রনালয় বাতিল করার কোন কারন খুজে পাওয়া যায় না। ডাকবাংলা এলাকায় জায়গার সমস্যা থাকলেও নিউমার্কেট ও দৌলতপুরে জায়গার কোন অভাব নেই। কারন ওভার ব্রীজ নির্মান করার জন্য প্রয়োজনীয় জায়গা থাকার পরও অনুমোদন না দেয়ায় যুক্তি সঠিক নয় বলে সূত্র থেকে দাবি করা হয়। খুলনা মহানগরীতে বর্তমান প্রচন্ড যানজট বিরাজ করছে। বিশেষ করে নগরীর প্রানকেন্দ্র ডাকবাংলা, গল্লামারী, নিরালা, ময়লাপোতা, সাতরাস্তা, ফুলমার্কেট, পিকচার প্যালেস, ফেরীঘাট, নিউমার্কেট, বৈকালী, নতুনরাস্তা ও দৌলতপুর মোড়ে যানজটের জন্য সড়ক পারাপারে সাধারন মানুষ প্রতিনিয়ত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। দুর্ঘটনাও ঘটছে সমান তালে। সূত্র জানায়, খুলনা মহানগরীতে বর্তমান অনুমোদন ছাড়া হাজার হাজার ইজিবাইক চলাচল করছে। এক শ্রেনীর প্রভাবশালী ব্যক্তিরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সহায়তায় লাইসেন্স বিহীন ইজিবাইক পরিচালিত করছে। হকার নেতারা পুলিশ প্রশাসনের দোহাই দিয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ন সড়কগুলির দু’পাশ দিয়ে বসিয়েছে ফেরীওয়ালাদের। ফুটপাত দিয়ে এখন চলাফেরা করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে। নগরীর যানজট গুরুত্বপূর্ন মোড়ে ওভার ব্রীজনির্মান এবং ফুটপাতগুলো থেকে হকারদের উচ্ছেদ করে যে কোন একটি জায়গায় তাদের বসার ব্যবস্থা করা এখন খুলনা মহানগরবাসীর দাবি। এ ব্যাপারে নাগরিক নেতা ও প্রবীন আইনজীবী এ্যাড: জি এম কামরুজ্জামান বলেন, যানজট নিরসনে কমপক্ষে পাঁচটি ওভারব্রীজ নির্মান প্রয়োজন। তিনি এ ব্যাপারে সরকার প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!