1. redsunbangladesh@yahoo.com : admin : Tofauil mahmaud
  2. mdbahar2348@gmail.com : Bahar Bhuiyan : Bahar Bhuiyan
  3. mdmizanm944@gmail.com : Mizan Hawlader : Mizan Hawlader
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০১:১৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বাস চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত সাধারণ মানুষের বেসরকারি হাসপাতালের সেবামূল্য সরকার নির্ধারণ করবে….স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ যত অর্জন সব আওয়ামী লীগের হাতেই: ড. হাছান মাহমুদ কাল থেকে ৬ জেলায় মাছ ধরা নিষিদ্ধ জাটকা সংরক্ষণে খাসোগি ইস্যুতে ৭৬ সৌদি নাগরিকের ভিসা নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের ঢাকা-ওয়াশিংটন জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করবে ‘প্রবীণদের জীবনমান উন্নয়নে সামাজিক নিরাপত্তার পরিধি বাড়ানো হয়েছে’ জিয়ার অবদান অস্বীকার করা মানে স্বাধীনতাকেই অস্বীকার করা….মির্জা ফখরুল বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে বড় পতন, ৮ মাসে সর্বনিম্ন বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছে প্রধানমন্ত্রী

আজ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, বাঙালির মুক্তির সনদ ৬ দফা, পরবর্তীতে ১১ দফা ও ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের পথ বেয়ে রক্তাক্ত সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালি জাতি অর্জন করে মহান স্বাধীনতা। ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ।
বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান এক তাৎপর্যপূর্ণ সূচনা। এই গণঅভ্যুত্থান ছিলো মহান স্বাধীনতা অর্জনের মাইলফলক।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৬ সালে ঔপনিবেশিক পাকিস্তানি শাসন, শোষণ ও বঞ্চনা থেকে বাঙালি জাতিকে মুক্ত করতে ঐতিহাসিক ৬ দফা ঘোষণা করেন।
এতে স্বাধিকার আন্দোলনের গতি তীব্রতর হয়। পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী আন্দোলনকে নস্যাৎ করার হীন উদ্দেশ্যে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা দায়ের করে বঙ্গবন্ধুকে বন্দী করে। এ মামলার বিরুদ্ধে দেশব্যাপী ছাত্র-শ্রমিক-জনতা দুর্বার ও স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন গড়ে তোলে।
পাকিস্তানি সামরিক শাসন উৎখাতের লক্ষ্যে ১৯৬৯ সালের ১৯ জানুয়ারি সংগ্রামী জনতা স্বৈরাচারী আইয়ুব দমন-পীড়নের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মিছিল বের করে।
২০ জানুয়ারি পাক পুলিশের গুলিতে শহীদ হন গণঅভ্যুত্থানের নায়ক শহীদ আমানুল্লাহ আসাদুজ্জামান (শহীদ আসাদ)। আসাদের আত্মদানের পর তার রক্তমাখা শার্ট নিয়ে তাৎক্ষণিক মিছিল বের করে ঢাকা বিশ্ব্যবিদ্যালয়ের ছাত্ররা। শুরু তীব্র আন্দোলন। ২১, ২২, ২৩ জানুয়ারি সারা দেশে শোক পালিত হয়।
২৪ জানুয়ারি ঢাকায় সচিবালয়ের সামনের রাজপথে নবকুমার ইনস্টিটিউটের নবম শ্রেণির ছাত্র কিশোর মতিউরসহ অন্য একজন শহীদ হন। আন্দোলন পরিপূর্ণ গণঅভ্যুত্থানে রুপ নেয়। তুমুল প্রতিবাদে সংগ্রামী জনতা সেদিন সচিবালয়ের দেয়াল ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেয়।
বিক্ষুব্ধ জনগণ আইয়ুব মোনায়েম চক্রের দালাল, মন্ত্রী, এমপিদের বাড়িতে এবং তাদের মুখপত্র হিসেবে পরিচিত তৎকালীন দৈনিক পাকিস্তান ও পাকিস্তান মর্নিং নিউজে আগুন লাগিয়ে দেয়। জনগণ আইয়ুব গেটের নাম পরিবর্তন করে নামকরণ করে আসাদ গেট।
দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শহীদ মতিউর স্মৃতিসৌধে (নবকুমার ইনস্টিটিউট, বকশীবাজার, ঢাকা) শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

—-সম্পাদক মন্ডলীর

সম্পাদকও প্রকাশক: তোফায়েল মাহমুদ ভূঁইয়া (বাহার
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক: হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক: কামরুল হাসান রোকন
বার্তা সম্পাদক: শরীফ আহমেদ মজুমদার
নির্বাহী সম্পাদক: মোসা:আমেনা বেগম

উপদেষ্টা মন্ডলীর

সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন মজুমদার,
প্রধান উপদেষ্টা সাজ্জাদুল কবীর,
উপদেষ্টা জাকির হোসেন মজুমদার,
উপদেষ্টা এ এস এম আনার উল্লাহ বাবলু ,
উপদেষ্টা শাকিল মোল্লা,
উপদেষ্টা এম মিজানুর রহমান

Copyright © 2020 www.comillabd.com কুমিল্লাবিডি ডট কম. All rights reserved.
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার
error: Content is protected !!